অনুপ্রবেশ করে মাছ ধরার অভিযোগে সুন্দরবনে ৫টি ট্রলারসহ ৬৮ জন আটক

অনুপ্রবেশ করে মাছ ধরার অভিযোগে সুন্দরবনে ৫টি ট্রলারসহ ৬৮ জন আটক

মাছ ধরার জেলের ছদ্মবেশে সুন্দরবনে অনুপ্রবেশ করার অভিযোগে বনবিভাগ পৃথক অভিযান চালিয়ে ৫টি ট্রলারসহ ৬৮ জনকে আটক করেছে।

সোমবার বিকেলে বনের ধানসিদ্ধির চর ও মঙ্গলবার সকালে ভদ্রা এলাকা থেকে এদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতদেরকে চাঁদপাই রেঞ্জ কার্যালয়ে আনার পর তাদের বিরুদ্ধে সিওআর মামলায় জনপ্রতি ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। আটককৃত সবার বাড়ি মোংলার বুড়িরডাঙ্গা ও জয়মনী এলাকায়।

এর আগে একই অপরাধে গত ৫ অক্টোবর সুন্দরবনের জয়মনি এলাকা থেকে ৩টি ট্রলারসহ ৬০ বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের ৬০ জনকে আটক করেছিল বনবিভাগ। তাদেরকেও একই আইনে (সিওআর) জনপ্রতি নগদ ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা আদায় করে ছেড়ে দেয় বনবিভাগ। পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মাহমুদুল হাসান জানান, দুবলার চরের রাস মেলা উপলক্ষে আটককৃতরা কয়েকদিন আগে মাছ ধরার জেলের ছদ্মবেশে ট্রলার যোগে বনবিভাগের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে সুন্দরবনের দুবলার চরে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে সোমবার বিকেলে বনের ধানসিদ্ধির চর এলাকা থেকে ৪৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

এ সময় জব্দ করা হয়েছে তাদের ব্যবহৃত ৪টি ট্রলারও। একই অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার সকালে বনের ভদ্রা এলাকা থেকে ১টি ট্রলারসহ বনে অনুপ্রবেশের অভিযোগে আরো ১৯ জনকে আটক করা হয়। এ সকল ব্যক্তিদের বাড়ী মোংলার বুড়িরডাঙ্গা ও চিলা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা শাহিন কবির বলেন, প্রথমে আটক হওয়া ৪৯ জন কোন পাস না নিয়ে অবৈধভাবে সুন্দরবনে অনুপ্রবেশ করে।

এ ছাড়া দ্বিতীয় দফায় আটককৃতদের মাছ ধরার পাস থাকলেও দুবলায় রাস মেলায় যাবার বৈধ কোন অনুমতি ছিল না। আটক সবাইকে সিওআর মামলার আওতায় নগদ ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
মোঃসোহেল, মোংলা