অনুষ্কাকে পাশে পেতে নিয়ম পাল্টাতে চান বিরাট

অনুষ্কাকে পাশে পেতে নিয়ম পাল্টাতে চান বিরাট

বিদেশের মাটিতে সফরের সময় স্ত্রীদের পাশে পান না ক্রিকেটাররা৷ বোর্ডের এই নিয়মই পাল্টানোর পক্ষে বিরাট৷ নভেম্বরেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে লম্বা সফর শুরু করছে ভারত৷ সেই সিরিজে ক্রিকেটাররা যাতে তাঁদের স্ত্রীদের পাশে পান, সেবিষয়ে বোর্ডের কাছে আর্জি জানিয়েছেন কোহলি৷ বোর্ডের বর্তমান পলিশি অনুয়ায়ী বিদেশ সফরে কোনও ক্রিকেটারের স্ত্রী দুই সপ্তাহ থাকতে পারে৷ এই নিয়মই পাল্টাতে চান ভিকে৷

জানা গিয়েছে শুধু বিরাটই নয় দলের অনেকে লম্বা বিদেশ সফরে স্ত্রীদের পাশে পাওয়ার বিষয়ে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন৷ ক্রিকেটারদের সেই ইচ্ছার কথা এক আধিকারিক মারফৎ বোর্ডের কানে তুলেছেন ভারত অধিনায়ক৷ বোর্ডও বিষয়টি ভেবে দেখতে চায়,সে কারণেই দলের ম্যানেজার সুভ্রমাণিয়মকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ জানাতে জানিয়েছে বিসিসিআই৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্তা জানিয়েছেন, ‘কয়েক সপ্তাহ আগেই অনুরোধ জানানো হয়েছিল৷ আনুষ্ঠানিকভাবে তা জানাতে বলা হয়েছে৷’  অতীতে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ড সফরে অনুষ্কাকে বিরাটের সঙ্গে বিদেশ সফরে দেখা গিয়েছিল৷

বিদেশ সফরে ক্রিকেটারদের সঙ্গে তাঁদের স্ত্রী’র থাকা নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ক্রিকেট দুনিয়া৷ ২০১৭ এর অ্যাসেজ সিরিজে অস্ট্রেলিয়া সফরকারী ইংল্যান্ড দল হোয়াইট ওয়াশের মুখোমুখি হয়৷ ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের নির্দেশে পৃথক এক ক্রিকেট সংস্থাকে হারের ময়নাতদন্ত করতে দেওয়া হলে স্ত্রী ও বান্ধবীদের সঙ্গকে হারের কারণ হিসেবে ব্যাখা করা হয়েছিল৷

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসনও স্ত্রী বা সঙ্গীদের সঙ্গে থাকাকে বাড়তি বোঝা বলে উল্লেখ করেছিলেন৷ উল্টো মতও রয়েছে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নারের স্ত্রী ক্যান্ডিস একবার বলেছিলেন, ‘লম্বা বিদেশ সফরে স্ত্রী-সন্তানদের পাশে পেলে ক্রিকেটারদের মন অনেক ভাল থাকে৷ ভাল কিংবা খারাপ, পারফরম্যান্স যাই হোক না কেন পরিবারের সঙ্গে সেসব আবেগ শেয়ার করার সুযোগ পায় ক্রিকেটারা৷’

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট