অসম্মান করা হয়েছে দ্রাবিড়-জহিরকে

অসম্মান করা হয়েছে দ্রাবিড়-জহিরকে

অনিল কুম্বলের সঙ্গে লজ্জাজনক ব্যবহারের পর ভারতীয় ক্রিকেটের আরও দুই কিংবদন্তি রাহুল দ্রাবিড় এবং জহির খানকেও অসম্মান করা হয়েছে৷ এমনটাই বলছেন বোর্ডের সিওএ-র প্রাক্তন সদস্য রামচন্দ্র গুহ৷

ক্যাপ্টেন কোহলির সঙ্গে মতপ্রার্থক্যের জেরে টিম ইন্ডিয়ার কোচের পদ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন কুম্বলে৷ এক বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও সচিন-সৌরভ-লক্ষ্ণণের অ্যাডভাইজরি কমিটি কুম্বলেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর পর্যন্ত বিরাট-ধোনিদের কোচের পদে রেখে দেন৷ কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ফাইনালের দু’দিন পরই কোচের পদে ইস্তফা দেন জাম্বো৷ ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তির এই রকম প্রস্থান মোটেই মেনে নিতে পারেননি অনেকেই৷ দেশের সর্বাধিক উইকেট শিকারী কুম্বলের এই ব্যবহার প্রাপ্য ছিল বলে জানিয়েছিলেন গুহ৷ এবার দ্রাবিড় ও জহিরের প্রতি বোর্ডের ব্যবহারে অসন্তোষ প্রকাশ করেন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বোর্ডের সিওএ-র সদস্য৷

টুইটারে গুহ লিখেছেন, কুম্বের সঙ্গে লজ্জাজনক ব্যবহারের পর দ্রাবিড় ও জাহিরের সঙ্গেও অসম্মানজনক ব্যবহার করা হচ্ছে৷ কুম্বলে, দ্রাবিড়, জহির তিন জনই ভারতীয় ক্রিকেটের মহান ব্যক্তিত্ব৷ জনমানসে এরূপ অসম্মান এদের প্রাপ্য নয়৷

কুম্বলের উত্তরসূরি হিসেবে রবি শাস্ত্রীকে প্রধান কোচ বেছে নেয় সচিন-সৌরভ-লক্ষ্মণের অ্যাডভাইজরি কমিটি৷ পাশাপাশি বোলিং পরামর্শদাতা হিসেবে জাহির ও বিদেশ সফরে ব্যাটিং পরামর্শদাতা হিসেবে দ্রাবিড়ের নাম সুপারিশ করে সচিন-সৌরভরা৷ কিন্তু বিরাটদের হেডস্যার শাস্ত্রীর পছন্দ নন দ্রাবিড় ও জহির৷ অ্যাডভাইজরি কমিটি দ্রাবিড় ও জহিরের নাম সুপারিশ করার সত্ত্বেও এই দুই কিংবদন্তির সঙ্গে চুক্তি করতে আগ্রহ দেখায়নি বিসিসিআই৷ উলটে শাস্ত্রীর পছন্দের বোলিং কোচ ভরত অরুণের নামে সিলমোহর দিতে চলেছে বোর্ড৷

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট