‘আগামী নির্বাচনে জয়ী হলে প্রতিরক্ষাবাহিনীকে আরও আধুনিকায়ন করা হবে’

‘আগামী নির্বাচনে জয়ী হলে প্রতিরক্ষাবাহিনীকে আরও আধুনিকায়ন করা হবে’

সততা ও দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে বিমান সেনাদের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা নিয়ে কাজ করে সমুন্নত রাখতে হবে দেশের সার্বভৌমত্ব।

‍বৃহস্পতিবার যশোরে বিমান বাহিনীর মতিউর রহমান ঘাঁটিতে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স উদ্বোধন করে একথা বলেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জয়ী হতে পারলে আরো আধুনিকায়ন করা হবে প্রতিরক্ষাবাহিনীকে।’

বাংলার আকাশসীমার সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশে বিমানবাহিনীকে শক্তিশালী আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে এবার যশোরের বিমানঘাঁটি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানে নির্মাণ করা হল আধুনিক অবকাঠামো সম্পন্ন সামরিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স। এতে রয়েছে একাডেমিক ট্রেনিং উইং, ফ্লাইং ট্রেনিং উইং, ক্যাডারস ট্রেনিং উইংসহ আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।

সকালে একাডেমি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর আকাশে দৃষ্টিনন্দন ফ্লাইপার্স প্রদর্শন করেন বিমান সৈনিকরা। পরে উপস্থিত বিমান সেনাদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘আধুনিক ও চৌকস বিমান বাহিনী গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ সরকার ফোর্সেস গোল ২০৩০ বাস্তবায়ন করছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, আধুনিক ও চৌকস জনশক্তি যোগান দিতে নির্মিতব্য বিমান সেনা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট সক্ষম হবে। সামনে নির্বাচন, যদি আসতে পারি তবে বিমান বাহিনীর জন্য আমাদের আরো পরিকল্পনা রয়েছে।’

যুদ্ধ নয়, শান্তি এই নীতিতে বাংলাদেশ আছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সার্বভৌমত্বে আঘাত আসলে শত্রু মুক্ত করার প্রস্তুতি থাকতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশকে আরো উন্নত ও  সমৃদ্ধশালী করে গড়ে তুলবেন। যদি কখন আঘাত আসে, বাংলাদেশকে যেন আমরা রক্ষা করতে পারি।’

এছাড়া ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চট্টগ্রামের বিমানঘাঁটি, চট্টগ্রামে ‘বিমান সেনা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট