আপনার সঠিক ক্যারিয়ার বেঁছে নেবেন যে ভাবে?

আপনার সঠিক ক্যারিয়ার বেঁছে নেবেন যে ভাবে?

বর্তমান অফিস নিয়ে দারুণ সন্তুষ্ট। পারফরম্যান্সও নজরকাড়া। বাইরের কোম্পানিরা মুখিয়ে আছে, যদি নিজেদের কোম্পানিতে নিয়ে আসতে পারে! ফলে ঝুলিতে এখন চাকরির প্রস্তাব অজস্র।

কী করবেন সেই কর্মী, যাকে নিয়ে কোম্পানিগুলো টাগ অফ ওয়ার শুরু করেছে?

তিনি কি এড়িয়ে যাবেন? যেমন চলছে তেমনই চলতে দেবেন। নাকি নতুন চ্যালেঞ্জটি সাগ্রহে গ্রহণ করবেন?

চাকরিক্ষেত্রে উন্নতি এভাবেই আসে। ভালো কর্মীরা সবসময়ই কোম্পানির সম্পদ। কোম্পানি মোটা মাইনে দিয়ে তাঁদের ধরে রাখার চেষ্টা করে। অন্য কোম্পানি তাঁদের নিয়ে যেতে চাইলে, কোনও মতে আটকানোর চেষ্টা চালায়। প্রোমোশন দেয়। স্যালারি হাইক দেয়। আরও অনেক কিছু দেয়। কিন্তু ব্যাপারটা তো ছেলে ভোলানো নয়। শেষমেশ তিনি যা সিদ্ধান্ত নেবেন, সেটাই মেনে নিতে হবে কোম্পানিগুলোকে।

তাই রইল কিছু টিপস্ :-

পুরো বিষয়টার প্রতি যুক্তিসঙ্গত হতে হবে। কী কী পদক্ষেপ আরও উন্নতির দিকে নিয়ে যাবে, সেদিকে নজর রাখতে হবে। নতুন কোম্পানির প্রস্তাবে কতখানি লাভবান হবেন বিচার করুন। সেখানকার পরিবেশ, স্যালারি, সহকর্মীরা কেমন জেনে নিন। সেই কোম্পানিতে যুক্ত হলে ভবিষ্যতে লাভ কতটা খোঁজ করুন। একই ভাবে বর্তমান কোম্পানিটি কেমন, কী কী সুবিধে এতদিন পেলেন, কোথায় অভাব- এসব নিয়ে ভাবনাচিন্তা করুন। মোদ্দা কথা হল, তুলনা করে দেখুন কোন কোম্পানির সিঁড়ি উচ্চতায় নিয়ে যাবে।

আরও একটা বিষয়। নতুন কোম্পানির সুযোগ সুবিধে পুরোপুরি সন্তুষ্ট করতে পারবে কি না, ভেবে দেখুন। কোম্পানির কাজের ধরন কী রকম জানুন। কতখানি নিজেকে তৈরি করতে হবে জেনে নিন।

ধৈর্য ধরে বিচার করুন। একেবারে নিশ্চিত হয়ে পা ফেলুন। নচেৎ থেকে যান পুরোনো কোম্পানিতেই। গান্ধারি হয়ে আগুনে ঝাঁপ দেওয়ার চেয়ে আগুন থেকে দূরে থাকুন। পুড়ে যাওয়ার ভয় থাকবে না। আর যদি সিদ্ধান্ত নেন বর্তমান কোম্পানি ছেড়ে নতুন কম্পানি জয়েন করবেন, তা হলে মনের জোরটাই এখানে আসল। মনের জোর থাকলে খোঁড়া মানুষও এভারেস্ট জয় করতে পারেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট