আমরা খেলতে খেলতে একদিন মাশরাফি ভাইয়ের মতো হয়ে যাব

আমরা খেলতে খেলতে একদিন মাশরাফি ভাইয়ের মতো হয়ে যাব

 

দুই বছর পর জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আবু হায়দার রনি। স্কোয়াডে সুযোগ পেলেও ম্যাচ খেলার সুযোগ আর পাননি। বর্তমানে কোর্টনি ওয়ালশের বিশেষ ক্যাম্পে বোলিং নিয়ে কাজ করছেন ২২ বছর বয়সী তরুণ।

তৃতীয় দিনের ক্যাম্প শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জানালেন ক্যাম্পের সার্বিক অবস্থা। তার বিশ্বাস আজকে যারা তরুণ, সবাই একদিন খেলতে খেলতেই মাশরাফির মতো হয়ে উঠবেন, ‘মাশরাফি ভাই তো অনেকদিন ধরে খেলছে। আমাদের সবার আদর্শ, অনেক অভিজ্ঞ। আর মাশরাফি ভাই তো একদিনে হননি, অনেকদিন খেলার পর আজকের মাশরাফি হয়েছেন। আমরা খেলতে খেলতে একদিন মাশরাফি ভাইয়ের মতো হয়ে যাব।’

মাশরাফির প্রসঙ্গ আসার কারণ সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের বোলাররা নতুন বলে ছিলেন ব্যর্থ।  সবমিলিয়ে গত কয়েক সিরিজে তিন সংস্করণে বোলারদের ব্যর্থতা ছিল চোখে পড়ার মতো।  শুধুমাত্র ডেথ ওভার কিংবা নতুন বলে বোলিং করার মতো দক্ষ ছিলেন মাশরাফি। তাই মাশরাফির মতো দক্ষ একজনকে খুঁজে পেতেই নিদাহাস ট্রফির আগে বিশেষ এই ক্যাম্প করছেন ওয়ালশ।

ভারত ও শ্রীলঙ্কা বাদে টুর্নামেন্টের তৃতীয় প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ।  তাই এই টুর্নামেন্টে যাওয়ার আগে ১৪ পেসারকে নিয়ে কাজ করছেন বোলিং কোচ।  এই ক্যাম্পের কাজগুলো ঠিকঠাক মতো করতে পারলেই সামনের টুর্নামেন্টে ইতিবাচক ফল আসবে বলে মনে করেন রনি, ‘ভালোই হচ্ছে। এখানে নতুন বলে কাজ করছি। ডেথ ওভারে কাজ হচ্ছে, ইয়র্কার নিয়ে কাজ হচ্ছে। যদি এই কাজগুলো করতে পারি, তাহলে আমাদের টি-টোয়েন্টিতে ভালো করার সুযোগ তৈরি হবে।’

পেসারদের স্কিলের সমস্যা থাকলেও কাজ করার মাধ্যমে সেগুলো সমাধান করা সম্ভব বলে মনে করেন রনি, ‘আসলে সব জায়গায় সবাই শতভাগ হয় না। ঘাটতি থাকবেই। তবে ওই ঘাটতিগুলো অনেক পরিশ্রম করার মাধ্যমে পূরণ করতে হবে।’

শ্রীলঙ্কায় পেসাররা কেমন করবে এমন প্রশ্নের জবাবে রনি বলেছেন, ‘শ্রীলঙ্কায় আসলে কখনো যাইনি। তবে আমাদের দক্ষতার জায়গাগুলো কাজে লাগাতে পারলে ভালোই হবে।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট