‘আমরা জনগণ নিয়ে কাজ করি, ভয় দেখিয়ে লাভ নেই’

‘আমরা জনগণ নিয়ে কাজ করি, ভয় দেখিয়ে লাভ নেই’

সরকার পতনের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে রাজধানীর একটি বাসায় প্রবীন আইনজীবী ড. কামাল হোসেনসহ অন্যরা সভা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেন, ‘ড. কামাল হোসেনরা মার্কিনিদের নিয়ে সরকার পতনের যড়যন্ত্র করছে। স্কুল শিক্ষার্থীদের সকল দাবি প্রধানমন্ত্রী মেনে নেওয়ার পরেও তারা সরকার পতনের নতুন যড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন।’

শুক্রবার আখাউড়া মোগড়া হাইস্কুলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদৎবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত মিলাদ ও কাঙ্গালিভোজে যোগ দিয়ে মন্ত্রী এ সব কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী আরো জানান, এই ঘটনার পর তার মোবাইলে ক্ষুদ্র বার্তা আসে। সেখানে লেখা ছিল, ‘ক্ষমতায় তো গেছেন, বের হবেন কোন দিক দিয়ে?’

এই প্রসঙ্গ টেনে আইনমন্ত্রী হুঁশিয়ার করে বলেন, ‘আমরা জনগণ নিয়ে কাজ করি, ভয় দেখিয়ে লাভ নেই। আমাদের মন ছোট নয়, বিশাল।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান, আখাউড়ার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি ড. আব্দুল্লাহ ভূঁইয়া বাদলসহ অন্যরা।

সকালে মন্ত্রী সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আখাউড়া রেলওয়ে জংশনে নেমে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

গত সপ্তাহে শনিবার সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের বাসায় নৈশভোজে যান বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকাট। ওইদিন ফেরার পথে তার গাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা চালান।

পরদিন হামলার বিষয়টি জানিয়ে মোহাম্মদপুর থানায় জিডি করেন ড. বদিউল আলম মজুমদার।

ওই নৈশভোজের বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়নি উল্লেখ করে বৃহস্পতিবার ১৪ দলের নেতারা প্রশ্ন তোলেন, বার্নিকাট পুলিশকে না জানিয়ে কেন ওই নৈশভোজে অংশ নিয়েছিলেন? নিশ্চয় এর পেছনে হীন কোনো উদ্দেশ্য আছে। ওই বৈঠকে ড. কামালও উপস্থিত ছিলেন বলে ১৪ দলের নেতারা জানিয়েছেন।

বার্নিকাটের গাড়িতে হামলার পরিপ্রেক্ষিতে গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বাংলাদেশের চলমান পরিস্থিতিকে গুণ্ডাতন্ত্রের বাংলাদেশ বলে মন্তব্য করেছিলেন।

ড. কামালের এমন মন্তব্য সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রের অংশ বলে অভিযোগ ১৪ দলের।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট