‘আমরা তিনশ’ আসনে নির্বাচন করতে চাই’

‘আমরা তিনশ’ আসনে নির্বাচন করতে চাই’

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন, ‘আমরা নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছি। এখন থেকেই যাত্রা শুরু হোক। আমরা তিনশ’ আসনে প্রার্থী দেবো। আমরা তিনশ’ আসনে নির্বাচন করতে চাই।’

শনিবার (২০ অক্টোবর) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বাধীন মহাসমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেন এরশাদ।

এরশাদ বলেন, একটি বিষয় স্পষ্ট করতে চাই। আর তা হলো আমরা তিনশ’ আসনে নির্বাচন করতে চাই। জোটগতভাবে তিনশ’ আসনে নির্বাচন করতে চাই আমরা। দেশবাসী পরিবর্তন চায়। তাই জাতীয় পার্টির সামনে সুদিন। আমরা ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য প্রস্তুত।

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে তিনি বলেন, সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী সব দলকে নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করতে হবে। একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে।

এরশাদ বলেন, দেশের স্বার্থে, গণতন্ত্রের স্বার্থে রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণ হতে পারে। পরিস্থিতির আলোকে জাতীয় পার্টি নির্বাচনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় গেলে প্রাদেশিক সরকার ব্যবস্থা প্রণয়ন করবে। দেশে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করবে। দারিদ্র দূর করবে।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক নেতাকর্মীদের ব্যানার পোস্টার নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে শুরুতেই বিরক্তি প্রকাশ করেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এসময় নেতাকর্মীরা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ব্যানার পোস্টার প্রদর্শন করে স্লোগান দিতে থাকে।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, তোমরা পোস্টার নামাও, তোমরা পোস্টার নামাও। তোমরা পছন্দের প্রার্থী নয়, বরং যোগ্য প্রার্থী চেয়ে স্লোগান দাও।

সাধারণ জনগণের উন্নয়নের জন্য যা যা করা লাগে জাতীয় পার্টি তা করবে উল্লেখ করে দলটির চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘শেষ কথা, নির্বাচনের জন্য অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। আমি নতুন করে ১৮ দফা কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। আমরা নির্বাচনের পদ্ধতি পরিবর্তন করতে চাই। বিচার বিভাগের স্বাধীনতা চাই। শিক্ষা পদ্ধতি সংস্কার চাই। স্বাস্থ্যসেবার সম্প্রসারণ চাই। শান্তির রাজনীতি চাই। সড়ক নিরাপত্তা চাই।’

সমাবেশে জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারসহ কেন্দ্রীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট