আমাকে বিচার করার অধিকার সোনমকে কে দিয়েছে : কঙ্গনা

আমাকে বিচার করার অধিকার সোনমকে কে দিয়েছে : কঙ্গনা

কঙ্গনাকে গুরুত্ব দেওয়া কঠিন।” বিকাশ ভেলের বিরুদ্ধে কঙ্গনার অভিযোগ প্রসঙ্গে এই কথা বলেছিলেন সোনাম। ক্ষোভপ্রকাশ করে পালটা কঙ্গনার প্রশ্ন , তাঁকে বিচার করার অধিকার সোনমকে কে দিয়েছে ?

কঙ্গনা পরিচালক বিকাশ ভেলের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ এনে বলেন, “কোনও সোশাল গ্যাদারিংয়ে দেখা হলে সৌজন্যমূলকভাবে আমরা জড়িয়ে ধরতাম একে অপরকে। কিন্তু, বিকাশ আমার ঘাড়ে মুখ গুঁজে দিত, চুলের গন্ধ নিত। এমন চেপে ধরত যে আমায় রীতিমতো ধাক্কা দিয়ে বেরোতে হত।”

গতকাল বেঙ্গালুরুর এক সামিটে সোনম এই প্রসঙ্গে বলেন, কঙ্গনা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথা বলেন। ফলে অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়ে তাঁকে গুরুত্ব দেওয়া। এরপরই এক বিবৃতি দেন কঙ্গনা। তিনি বলেন, “কঙ্গনাকে বিশ্বাস করা কঠিন ? যখন আমি আমার #MeToo-র কথা বলছি, তখন ওকে কে অধিকার দিল আমাকে বিচার করার ? সোনামের কাছে লাইসেন্স আছে কিছু মহিলাকে বিশ্বাস করার ও কিছু মহিলাকে নয়…”

কঙ্গনা আরও বলেন, “আন্তর্জাতিক সামিটগুলিতে আমি দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছি। আমাকে যুবসমাজের প্রভাবক বলেও আখ্যা দেওয়া হয়েছে। আমার পরিচিত আমার বাবাকে দিয়ে নয়। একটা দশক ধরে সংগ্রাম করে আমি আমার জায়গা নিজে অর্জন করেছি। না তো ও মহান অভিনেত্রী, না ওর ভালো বক্তা হিসেবে এমন কোনও খ্যাতি আছে। কেন যে এই ফিল্মি মানুষগুলি আমাকে আক্রমন করতে আসে! আমি প্রত্যেককে ধ্বংস করে দেব।”

বলিউডে #MeToo মুভমেন্টের শুরু হয়ে গেছে তনুশ্রী দত্তর অভিযোগ দিয়ে। এরপর একে একে অনেকেই হেনস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন। কেউ তনুশ্রী, কঙ্গনাদের সমর্থন জানিয়েছেন। কেউ বা নিজের হেনস্থার মুখে পড়ার কথা স্বীকার করেছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট