আমাদেরকে ইরান নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখুন: ওয়াশিংটনকে সিউল

আমাদেরকে ইরান নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখুন: ওয়াশিংটনকে সিউল

ইরানের ওপর আরোপিত তেল নিষেধাজ্ঞা থেকে দক্ষিণ কোরিয়াকে ‘যথাসম্ভব’ বাইরে রাখার জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সিউল। ইরানের অন্যতম বড় তেল ক্রেতা দক্ষিণ কোরিয়া বলেছে, তেহরানের কাছ থেকে তেল কিনতে না পারলে কোরিয়ার বহু কোম্পানির মারাত্মক ক্ষতি হবে।

আগামী ৪ নভেম্বর থেকে ইরানের তেল রপ্তানির ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হতে যাচ্ছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাং কিউং-হা সোমবার রাতে তার মার্কিন সমকক্ষ মাইক পম্পেওকে টেলিফোন করে তার দেশকে ছাড় দেয়ার অনুরোধ জানান। দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, সেদেশের কোম্পানিগুলোর ক্ষতি ন্যুনতম পর্যায়ে রাখার জন্য মন্ত্রী ক্যাং তার দেশকে ইরানের তেল নিষেধাজ্ঞায় ‘সর্বোচ্চ ছাড়’ দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, পম্পেও সিউলের অনুরোধ বিবেচনা করার আশ্বাস দিয়েছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট  ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করে সেদেশের তেল রপ্তানি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার হুমকি দিয়েছিলেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের সম্ভাব্য ঘাটতি ও জ্বালানীর দাম নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার আশঙ্কায় এখন মার্কিন প্রশাসন সেই সব দেশকে ইরানের কাছ থেকে তেল আমদানি করার অনুমতি দেয়ার কথা বিবেচনা করছে যেসব দেশ এরইমধ্যে তেহরানের কাছ থেকে তেল কেনা কমিয়ে দিয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানিগুলো আমেরিকার কাছ থেকে ছাড় আদায়ের লক্ষ্যে সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইরানের কাছ থেকে তেল আমদানি স্থগিত রেখেছিল বলে জানা গেছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট