আমেরিকার বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে পারে রাশিয়া

আমেরিকার বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে পারে রাশিয়া

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, আমেরিকায় রুশ কূটনৈতিক স্থাপনা জব্দ ও ৩০ জন কূটনীতিক বহিষ্কারের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে পারে মস্কো। মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ তুলে গত বছরের শেষ দিকে ওবামা প্রশাসন রাশিয়ার দুটি কূটনৈতিক স্থাপনা জব্দ ও ৩০ জন কূটনীতিককে বহিষ্কার করছিল।

মঙ্গলবার অস্ট্রিয়া সফরের সময় এ প্রসঙ্গে ল্যাভরভ রুশ গণমাধ্যমকে বলেন, বহিষ্কৃত রুশ কূটনীতিকদের ফেরত নেয়া ও কূটনৈতিক স্থাপনা খুলে দেয়ার জন্য মস্কো চেষ্টা করেছে। কিন্তু আমেরিকার পক্ষ থেকে কোনো ইতিবাচক পদক্ষেপ নেয়া হয় নি অথচ আন্তর্জাতিক আইনের বুলি আওড়ায়। তিনি বলেন, “বিষয়টি অনেক বেশি দীর্ঘায়িত হয়েছে এবং জঘন্য পর্যায়ে চলে গেছে। বিষয়টি ঝুলন্ত অবস্থায় রাখা নিতান্তই লজ্জাজনক।”

ল্যাভরভ বলেন, মস্কো এখন পাল্টা ব্যবস্থার কথা চিন্তা করছে। তবে, কী ধরনের ব্যবস্থা নিতে পারে রাশিয়া তিনি তা স্পষ্ট করেন নি।

ওবামার প্রশাসনের শেষ দিকে রুশ কূটনীতিবিদের বহিষ্কারের আদেশ দেয়া হয়। তখন পাল্টা ব্যবস্থা গ্রহণ করা থেকে বিরত ছিল মস্কো। সম্প্রতি, জার্মানির হামবুর্গে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের অবকাশে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠকের সময়ে এ প্রসঙ্গ তোলা হয়। তবে, সংকট নিরসনের বিষয়ে কোনো পরিকল্পনার কথা জানান নি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট