আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ রাতে

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ রাতে

পূর্ণ শক্তির ব্রাজিল বনাম ‘নতুন আর্জেন্টিনা’। প্রীতি ম্যাচে আজ সৌদি আরবের জেদ্দায় মুখোমুখি হবে দক্ষিণ আমেরিকার দুই ফুটবল পরাশক্তি।

বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় খেলা শুরু হবে। দলে না থেকেও আলোচনায় লিওনেল মেসি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে সাবেক ক্লাব সতীর্থকে ভীষণ মিস করছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। যত দ্রুত সম্ভব মেসিকে আর্জেন্টিনা দলে দেখতে চান তিনি।

নেইমার বলেন, ‘এটা ফুটবলের জন্য লজ্জার। যতদিন সম্ভব আমাদের মেসির খেলা উপভোগ করা উচিত। সে যত বেশি খেলবে, আমরা যারা ফুটবল ভালোবাসি তাদের জন্যই ভালো।’ মেসি ছাড়াও সার্জিও আগুয়েরো, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, গঞ্জালো হিগুয়েইন, এভার বানেগার মতো সিনিয়র খেলোয়াড়রা নেই আর্জেন্টিনা দলে। তরুণদের নিয়ে দল সাজিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত কোচ লিওনেল স্কালোনি। তা সত্ত্বেও উত্তেজনা এতটুকু কমবে না বলেই মনে করেন নেইমার। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচের প্রত্যাশা করে ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক বলেন, ‘আমি সতীর্থদের সঙ্গে কথা বলেছি।

আমি তাদের বলেছি, পরবর্তী ম্যাচটা গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার বিপক্ষে খেলতে হবে। প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের নিয়ে তাদের দলটা অসাধারণ। এমন খেলোয়াড়দের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পেরে আমরা খুশি। এটাই ফুটবলকে এত মহান করে তুলেছে।’

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ কখনো প্রীতি ম্যাচ হয় না বলে আগেই দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস দিয়ে রাখে দুইদল। ব্রাজিল কোচ লিওনার্দো বাচ্চি তিতে বলেন, ‘ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার মধ্যকার ম্যাচ কখনো প্রীতি ম্যাচ হয় না। আমাদের সেরাটাই দিতে হবে।’

আর আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি বলেন, ‘ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলা মানে অন্য কিছু। ওদের বিপক্ষে যে ম্যাচই খেলি না কেন, সেটা কখনো সাধারণ প্রীতি ম্যাচ হয় না। এটা কখনো হবেও না।’ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে প্রীতি ম্যাচে স্বাগতিক সৌদি আরবের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় কুড়ায় ব্রাজিল। আর ইরাককে ৪-০ গোলে উড়িয়ে প্রস্তুতি সারেন দিবালারা।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ‘ওলে’র দাবি, ইরাকের বিপক্ষে একাদশে থাকা পাউলো দিবালা ও ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা শুধু ব্রাজিলের বিপক্ষে একাদশে থাকতে পারেন। আর এ ম্যাচেও গোলবার সামলাতে পারেন অভিজ্ঞ সার্জিও রোমেরো।

এ ছাড়া নিকোলাস ওটামেন্ডি, রেঞ্জো সারাভিয়া, ওয়াল্টার কানেমান, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো, সান্টিয়াগো আসকাসিবার, জিওভানি লো সেলসো, ইকার্দি, অ্যাঞ্জেল কোরেয়া একাদশে থাকতে পারেন। এদের নিয়েই অনুশীলনে মূল একাদশ সাজান স্কালোনি। ইনজুরির কারণে দলে নেই ক্রিস্টিয়ান পাভন। ব্রাজিল দলেও আর্থার মেলো, রিচার্লিসন, ম্যালকমের মতো তরুণ খেলোয়াড় রয়েছে।

তাদের প্রশংসা করে নেইমার বলেন, ‘আমাদের দলে অনেক নতুন খেলোয়াড় রয়েছে। সবাই প্রতিভাবান এবং নিজেদের প্রমাণ করেই এসেছে। আশা করছি দলের জন্য তাদের কাছ থেকে সেরাটা বের করে আনতে পারবো।’ ১০৪ বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে ৪০ ম্যাচে ব্রাজিল ও ৩৮ ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। ২৬ ম্যাচ ড্র হয়। সবশেষ মেলবোর্নে গত বছরের জুনে প্রীতি ম্যাচে সেলেকাওদের ১-০ গোলে হারায় আলবিসেলেস্তেরা।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট