আলাদীনের চেরাগ পেয়েছিলেন ডিআইজি মিজান

আলাদীনের চেরাগ পেয়েছিলেন ডিআইজি মিজান

পুলিশের চাকরি পেয়ে ডিআইজি মিজান যেন আলাদীনের চেরাগ পেয়েছিলেন। একসময় তার পড়ালেখার খরচ যোগাতে পারতেন না বাবা, অথচ এখন কোটি কোটি টাকা খরচ করে গ্রামের বাড়ি বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে গড়েছেন বিশাল অট্টালিকা। এলাকার মানুষ যেটির নাম দিয়েছে, ডিআইজি সাহেবের “স্বর্ণকমল”।

এছাড়া, ভাইয়ের নামে বিলাসবহুল ফ্ল্যাট, ভাগ্নের নামে বাণিজ্যিক স্পেস, স্ত্রীর নামে আলিশান ফ্ল্যাট ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার। কানাডার ব্যয়বহুল প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনার খরচ চালাচ্ছেন সন্তানের।

মেহেন্দিগঞ্জের অম্বিকাপুরের বিশাল এই বাড়িটি এখন সাধারণ মানুষের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। তাদের ধারণা, ডিআইজি সাহেবের বিশাল ক্ষমতা, তার দ্বারাই সম্ভব এমন বাড়ি তৈরি করা। যদিও রহস্যেঘেরা বাড়িটির ভেতরে কী আছে, তা নিয়ে কৌতুহল অনেকের।

বরিশাল সদর থেকে কয়েক ঘণ্টার দুর্গম নদীপথ পেরিয়ে যেতে হয় মেহেন্দিগঞ্জ। পুরাতন হিজলা নদী ভাঙন কবলিত এলাকা থেকে উঠে আসে মিজানের পরিবার। ছেলের লেখাপড়ার খরচও চালাতে পারতেন না তার বাবা। মিজানের উচ্চ শিক্ষার জন্য সাহায্যের হাত প্রসারিত করেন সরকারি চাকরি করা বড় বোন।

মিজান পুলিশে চাকরি নেয়ার পর জাদুর মতো বদলে যায় সব। আর্থিক দৈন্যদশা কাটিয়ে গড়ে তোলেন বিপুল ধন-সম্পদ। আলাদিনের চেরাগ হাতে পাওয়ায় তার নিকট আত্মীয়দের অনেকেও এখন কোটিপতি।

মেহেন্দিগঞ্জের ছোট একটি ফার্মেসি ব্যবসায়ী ডিআইজি মিজানের একমাত্র ভাই মাহবুবুর রহমান স্বপন। অথচ ঢাকার বেইলি রোডে তার নামেই রয়েছে বিলাসবহুল ফ্ল্যাট।

ভাগ্নে মাহমুদুল হাসান নোমান শিক্ষানবিশ এসআই হিসেবে কর্মরত ঢাকার কোতয়ালী থানায়। কাকরাইলে তার নামেও আছে বাণিজ্যিক স্পেস। সবাই জানেন, এসবের আসল মালিক ডিআইজি মিজান।

নিজের দু’সন্তানের একজন পড়ালেখা করেন কানাডার ব্যয়বহুল বিশ্ববিদ্যালয়ে। স্ত্রীর নামে গুলশানের পুলিশ প্লাজায় গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি দামি ফ্ল্যাট আছে উত্তরায়।

নামে-বেনামে বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল গাড়ি থাকার অভিযোগ আছে পুলিশের এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। চাকরি জীবনে বান্ধবীদের দিয়েছেন হাত উজাড় করে। এছাড়া পূর্বাচলে প্লট, সাভারের পুলিশ কলোনিতে ফ্ল্যাটও আছে ডিআইজি মিজানের ।

ভুক্তভোগি কয়েকজন তরুণীর অভিযোগ, রাজধানীর অভিজাত এলাকায় অনেককেই ফ্ল্যাট দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ডিএমপি থেকে প্রত্যাহার হওয়া ডিআইজি মিজান।

তার ধন-সম্পদের আধিক্য দেখে মনেই হতে পারে আলাদীনের চেরাগ পেয়েছিলেন মিজান।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট