ইরান হজ পালনের জটিলতা দূর করতে সৌদিকে চূড়ান্ত সময়সীমা বেধে দিলো

ইরান হজ পালনের জটিলতা দূর করতে সৌদিকে চূড়ান্ত সময়সীমা বেধে দিলো

চলতি বছরের হজ পালনের বিষয়ে জটিলতা দূর করার জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে সৌদি আরবকে রোববার পর্যন্ত চূড়ান্ত সময়সীমা বেধে দিয়েছে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান।

ইরানের হজ সংস্থার প্রধান সাঈদ ওহাদি জানিয়েছেন, ইরানি হজযাত্রীদের নিরাপত্তা ও মর্যাদা রক্ষার শর্ত মেনে নিতে অস্বীকার করেছে সৌদি আরব। এ প্রেক্ষাপটে রিয়াদকে তেহরান চূড়ান্ত সময়সীমা বেধে দিয়ে বলেছে, রোববারের মধ্যে ইরানের শর্ত মানার বিষয়ে সৌদি আরবকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তারপর ঠিক হবে ইরান চলতি বছর হজে লোক পাঠাবে কিনা। শুক্রবার রাতে সাঈদ ওহাদি এসব কথা জানিয়েছেন।

তিনি জানান, গত বছর হজের ট্রাজেডির কথা মাথায় রেখে ইরান তার নাগরিকদের নিরাপত্তা ও মর্যাদা রক্ষার জন্য ১১টি শর্ত দিয়েছিল। সর্বশেষ আলোচনায় সৌদি আরব এসব শর্ত থেকে মাত্র ছয়টি মেনে নিতে রাজি হয়েছে। সৌদি কর্মকর্তাদের একগুঁয়ে অবস্থানের কারণে বাকি পাঁচটি নিষ্পত্তি হয় নি।

গত মঙ্গলবার সৌদি সরকারের আমন্ত্রণে ইরানের একটি উঁচু পর্যায়ের প্রতিনিধিদল রিয়াদ সফরে যায়। এ প্রতিনিধিদলের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা হলেও সৌদি আরব অনড় অবস্থানে থাকার কারণে ইরানের জনগণের পক্ষে আসন্ন হজ মৌসুমে হজের মতো গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত করা অনিশ্চিত হয়ে উঠেছে।

ইরানি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে আলোচনার সময় সৌদি কর্মকর্তারা জোর দিয়ে বলেছেন, তারা তেহরানের দাবির বিষয়ে সব সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা রাখেন না; এসব সিদ্ধান্ত নেবে সৌদি সরকারের আরো উঁচু পর্যায়ের লোকজন।

ওহাদি জানান, এ বক্তব্য থেকে পরিষ্কার হয়েছে যে, সৌদি সরকারের অন্য একটি অংশ সরাসরি বিষয়টির সঙ্গে জড়িত এবং তারাই ইরানি নাগরিকদের হজের বিষয়ে বাধা সৃষ্টি করছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট