ইসরায়েলি বসতি এখন আর অবৈধ নয়: যুক্তরাষ্ট্র

ইসরায়েলি বসতি এখন আর অবৈধ নয়: যুক্তরাষ্ট্র

অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলিদের বসতিকে আর ‘অবৈধ’ বলবে না যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জানান ওয়াশিংটনের অবস্থান পরিবর্তনের এ তথ্য।

তিনি বলেন, ইহুদি অধিগ্রহণকে আর আন্তর্জাতিক আইনের সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ বিবেচনা করবে না ওয়াশিংটন।

মার্কিন এ ঘোষণাকে তাৎক্ষনিকভাবে স্বাগত জানিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

তবে, যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপকে দায়িত্বজ্ঞানহীন আখ্যা দিয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর, পশ্চিম তীরের ফিলিস্তিনি ভূমি দখল করে ইসরায়েল। সেখানেই, ইহুদি বসতি সম্প্রসারণ চলছে।

এ দখলদারিত্বকে বিশ্বনেতারা কখনোই স্বীকৃতি দেয়নি। আন্তর্জাতিক আইনে, পশ্চিম তীর ও পূর্ব জেরুজালেমে ইহুদি বসতি স্থাপন অবৈধ।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনের ব্যাপারে ওবামা প্রশাসনের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে সরে এসেছে ট্রাম্প সরকার। কারণ, সাধারণ মার্কিনীদের চিন্তাভাবনার সাথে সেটা অসঙ্গতিপূর্ণ। সবপক্ষের বৈধতা ও বিতর্ক পর্যবেক্ষণ শেষে, যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্য- অধিকৃত অঞ্চলে ইসরায়েলিদের বসতি স্থাপন আন্তর্জাতিক আইন পরিপন্থি নয়।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ