উ. কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার লক্ষ্য হতে হবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ: আমেরিকা

উ. কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার লক্ষ্য হতে হবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ: আমেরিকা

উত্তর কোরিয়া আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসার যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে সে ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ। মার্কিন সরকার বলেছে, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যেকোনো আলোচনার মাধ্যমে পিয়ংইয়ংকে তার পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচির সমাপ্তি ঘটাতে হবে।

দক্ষিণ কোরিয়া গতকাল (রোববার) জানিয়েছিল, সেদেশের পাশাপাশি আমেরিকার সঙ্গে একইসঙ্গে আলোচনা ও সম্পর্কের উন্নতি চায় উত্তর কোরিয়া। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার নেতার বোনের উত্তর কোরিয়া সফরে দুই দেশের উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পর সিউল একথা জানাল।

এদিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিকের সমাপনি অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য উত্তর কোরিয়ার একটি প্রতিনিধিদল বর্তমানে দক্ষিণ কোরিয়ায় রয়েছে। এই প্রতিনিধিদলে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচির দায়িত্বে থাকা কূটনীতিকরা রয়েছেন।

শীতকালীন অলিম্পিকের সমাপনি অনুষ্ঠান দেখছেন (সামনের সারিতে বাম থেকে) দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন, তার স্ত্রী ও ইভাঙ্কা ট্রাম্প

অন্যদিকে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কন্যা ইভাঙ্কা ট্রাম্প। তার সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি সারা স্যান্ডার্স এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। তবে উত্তর কোরিয়া ও আমেরিকার প্রতিনিধিদলের মধ্যে কোনো বৈঠকের আভাস পাওয়া যায়নি।

রোববার উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে আলোচনায় বসার আগ্রহের খবর প্রকাশিত হওয়ার পর সারা স্যান্ডার্স এক বিবৃতিতে বলেন, “আমরা দেখতে চাই পিয়ংইয়ংয়ের আজকের আলোচনার প্রস্তাবের মাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের প্রক্রিয়া শুরু করা যায় কিনা। সেইসঙ্গে আমেরিকাসহ গোটা বিশ্ব উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির পরিসমাপ্তি দেখতে চায়।”

স্যান্ডার্স আরো বলেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যেকোনো আলোচনার ফল হতে হবে দেশটিকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করা। তিনি দাবি করেন, উত্তর কোরিয়া যদি পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের পথে অগ্রসর হয় তাহলে তার জন্য সুন্দর ভবিষ্যতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট