একই পরিবারের ৭ জনকে গুলি করে হত্যা

একই পরিবারের ৭ জনকে গুলি করে হত্যা

 

অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের একটি বাড়িতে শুক্রবার একই পরিবারের সাতজনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। ২২ বছরের মধ্যে দেশটিতে এটিই সবচেয়ে ভয়াবহ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা। পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের হত্যার পর এটি একটি আত্মহত্যার ঘটনা বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের মার্গারেট রিভার এলাকার কাছের একটি বাড়িতে পুলিশ ওই পরিবারের চার শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক তিন ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। পুলিশ নিহতদের পরিচয় দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

তবে প্রতিবেশীরা স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, নিহতরা হলেন- ক্যাটরিনা মাইলস নামের এক নারী, তার আট থেকে ১৩ বছর বয়সী শিশু ও তার বাবা-মা।

প্রতিবেশী কারও ফোন থেকে পাওয়া খবরে পুলিশ ঐ বাড়িতে যায়। পুলিশ জানিয়েছেন, লাশগুলোর কাছে দুটি আগ্নেয়াস্ত্র পাওয়া গেছে। নিহতদের মধ্যে বয়স্ক ২ জনের লাশ বাড়ির বাহিরে এবং বাকিদের মৃত দেহগুলো ঘরের মধ্যে পাওয়া যায়।

পুলিশ এ ঘটনায় কাউকে সন্দেহ করছে কিনা সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি। নিশ্চিত না হলেও তারা একে হত্যার পর আত্মহত্যার ঘটনা মনে করছে।

১৯৯৬ সালের পরে অস্ট্রেলিয়াতে এমন লোমহর্ষক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেনি। পোর্ট আর্থারের ঐ ঘটনায় এক ব্যক্তি গুলি করে ৩৫ জনকে হত্যা ও ২৩ জনকে গুরুতর আহত করে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট