এখনই বাছাইপর্বে চারে উঠে আসছে আর্জেন্টিনা!

এখনই বাছাইপর্বে চারে উঠে আসছে আর্জেন্টিনা!

মাত্র এক মাস। এরপরই বিশ্বকাপে যাওয়ার দৌড় শুরু হবে নতুন করে। দক্ষিণ আমেরিকা (কনমেবল) অঞ্চলের বাছাইপর্বের খেলা শুরু হচ্ছে আগামী ৩১ আগস্ট। শেষ চার ম্যাচে জীবনমরণ লড়াইয়ে নামবে আটটি দল। দৌড়ের শেষভাগে এসে একটা সুখবর পাচ্ছে আর্জেন্টিনা। পয়েন্ট টেবিলে এত দিন পাঁচে থাকলেও বাছাইপর্ব নতুন করে শুরু হওয়ার আগেই চারে চলে আসবে মেসি ও তাঁর দল। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে সরাসরি বিশ্বকাপে খেলতে পারবে প্রথম চারটি দল। চারে উঠে আসা আর্জেন্টিনার জন্য অনেক বড় সুখবর।

১০ দলের এ গ্রুপ থেকে পঞ্চম দলকে পার হতে হবে প্লে-অফ। সাধারণত প্লে-অফে দক্ষিণ আমেরিকান দেশগুলোই জয়ের হাসি হাসে। তবু আর্জেন্টিনার মতো দল, যে দলে মেসি-ডিবালা-হিগুয়েইনের মতো তারকারা খেলেন—বিষয়টি একটু লজ্জার। তাতে আর্জেন্টিনার দায় বেশি, তবে ভূমিকা আছে বলিভিয়ারও। বলিভিয়ার একটি ভুলে যে এমন বিপাকে পড়েছিল আর্জেন্টিনা। অবৈধভাবে নেলসন ক্যাব্রেরাকে মাঠে নামিয়েছিল বলিভিয়া। ফলে বলিভিয়ার সঙ্গে ড্র করেও তিন পয়েন্ট পেয়েছিল চিলি। আরেক ম্যাচে ২-০ গোলে হেরেও ৩ পয়েন্ট পেয়েছিল পেরু।

বাড়তি দুই পয়েন্ট পেয়ে আর্জেন্টিনাকে টপকে চারে চলে গিয়েছিল চিলি (২৩ পয়েন্ট)। ২২ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে এখন আর্জেন্টিনা। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিষয়ক সালিসি আদালতের (টিএএস) নতুন রায়ে সেটা বদলে যাচ্ছে। যেহেতু পেরু ও চিলি এ বিষয়ে আপিল করতে ম্যাচের পর ২৪ ঘণ্টার বেশি অপেক্ষা করেছিল, তাই আগের সিদ্ধান্ত বাতিল করে দিয়েছে টিএএস। বলিভিয়ার ৬ পয়েন্ট কেটে রাখা হলেও চিলিকে প্রাপ্য এক পয়েন্টই শুধু দেওয়া হয়েছে। পেরুর তো তিন পয়েন্টই কমে গেছে।

ফলে চিলির পয়েন্ট কমে ২১ হয়ে যাবে বাছাইপর্ব শুরু হওয়ার আগেই। ফলে পাঁচে নেমে যাবে বর্তমান কোপা আমেরিকা জয়ীরা। আর পেরুও তিন পয়েন্ট হারিয়ে এক অবস্থান পিছিয়ে আটে (১৫ পয়েন্ট) নেমে যাবে। চিলির এখনো আশা বেঁচে থাকলেও পেরু প্রায় ছিটকেই গেছে বিশ্বকাপের দৌড় থেকে।

চিলির মিডফিল্ডার মার্সেলো ডিয়াজ এ সিদ্ধান্তে রাগ লুকানোর চেষ্টা করেননি, ‘আমার ধারণা, ওরা আমাদের পয়েন্ট কেটে নেবে, কারণ ফুটবলে এখন অনেক কালো হাত।’

এ অঞ্চল থেকে ব্রাজিল এরই মধ্যে টিকিট কেটে ফেলেছে বিশ্বকাপের। আর ভেনেজুয়েলার বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে কাগজে-কলমেও।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট