‘এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খুব ভালো সম্ভাবনা আছে’

‘এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খুব ভালো সম্ভাবনা আছে’

আজ (রোববার) শুরু হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ক্রিকেটার্স ড্রাফট। সেই ড্রাফটে অংশ নিতেই এরই মধ্যে ঢাকা এসে পৌঁছেছেন টুর্নামেন্টটির ফ্র‍্যাঞ্চাইজি সিলেট সিক্সার্স দলের পাকিস্তানি কোচ ওয়াকার ইউনুস। বাংলাদেশের এসে এই কিংবদন্তি বোলার কথা বলেছেন বিপিএল নিয়ে, একই সাথে জানিয়েছেন ক্রমশ উন্নতির শিখরে পৌঁছে যাওয়া বাংলাদেশ দল আসন্ন বিশ্বকাপে কেমন করতে পারে তার কথাও।

আগামী বছরের মাঝামাঝিতে ইংল্যান্ডে বসবে ক্রিকেটের মেগা আসর বিশ্বকাপ ক্রিকেট। সেই আসরে বাংলাদেশকে শিরোপার বড় দাবিদার হিসাবে দেখছেন সিলেট সিক্সার্সের কোচ ওয়াকার ইউনুস। টাইগাররা দিনে দিনে যেভাবে উন্নতি করছে তাতে এবার খবু ভালো করবে বলে মনে করছেন পাকিস্তানি সাবেক এই গ্রেট বোলার। বাংলাদেশে এসে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন,

‘বাংলাদেশ তাদের দিনে যেকোনো দেশকে হারাতে পারে। এখন দুর্দান্ত খেলছে তারা। আমাদের (পাকিস্তানের) এখান থেকে শেখার আছে। এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খুব ভালো সম্ভাবনা আছে। তবে খেলাটা যেহেতু ইংল্যান্ডে, সুতরাং সেখানকার কন্ডিশনটা বাংলাদেশের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে। আমার মনেহয় একটু শান্ত থেকে নিজেদের খেলাটা ঠিকঠাক খেললেই সাফল্য পাবে বাংলাদেশ।’

এদিন বিপিল নিয়েও কথা বলেছেন ওয়াকার। বিপিএলকে বাংলাদেশ দলের প্লেয়ার্স তৈরির বড় প্লাটফর্ম আখ্যায়িত করে ওয়াকার বলেন, ‘বিপিএলের মাধ্যমে সারাদেশের ক্রিকেট ছড়িয়ে পড়ছে। এই ধরনের টুর্নামেন্টের সার্থকতাটা এখানেই। এখানে নতুন ক্রিকেটাররা নিজেদেরকে প্রমান করার সুযোগ পাবে। আর আমরা তরুণ এসব ক্রিকেটারকে উজ্জীবিত করতেই এখানে এসেছি।’

গেল মৌসুমের সিলেট সিক্সার্সের পরামর্শক ওয়াকার ইউনুস এবার হেড কোচের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ডেভিড ওয়ার্নারকে দলে ভিড়িয়ে এরই মধ্যে সিলেট দিয়েছে বড় চমক। নাসির-সাব্বিরদের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন দেশের আরেক তারকা ক্রিকেটার লিটন দাস। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত সন্তুষ্ট দলটির কোচ।

ড্রাফটের আগে নিজের দল নিয়ে ওয়াকার ইউনুস বলেন, ‘এখন পর্যন্ত দারুণ একটি দল হয়েছে। আমরা গতবারও শিরোপা জিততে চেয়েছিলাম। এবারও একটাই লক্ষ্য, চ্যাম্পিয়ন হওয়া। গেলবারের চ্যাম্পিয়ন রংপুর কিংবা অন্য কোন দলকেই আমরা টার্গেট করছিনা। আমাদের মূল লক্ষ্য, মাঠে নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট