‘এস কে সিনহার দুর্নীতি বিষয়ে তথ্য প্রমাণ পেলেই তদন্ত করবে কমিশন’

‘এস কে সিনহার দুর্নীতি বিষয়ে তথ্য প্রমাণ পেলেই তদন্ত করবে কমিশন’

সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ পেলে যে কারও বিরুদ্ধে তদন্ত করবে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার দুর্নীতির তদন্ত প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। এ সময় দুদক চেয়ারম্যান আরও বলেন, এস কে সিনহার দুর্নীতি বিষয়ে তথ্য প্রমাণ পেলেই তদন্ত করবে কমিশন।

দুদকের আইনজীবীর বক্তব্য অনুযায়ী তদন্ত শেষ পর্যায়ে কিনা সাংবাদিকরা জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আমরা যে আইনজীবী রাখি তা মামলার জন্যে। আইনজীবী যা বলেছে এটা তার নিজস্ব কথা।’

তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়া আইনমন্ত্রী যা বলেছেন তার নিজের বিষয়। আর সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অনুসন্ধান হচ্ছে কি হচ্ছে না তার জবাব আমরা এখন দেবো না। একটা অবৈধ ভাবে ঋণের বিষয়ে অনুসন্ধান চলছে। আর একটার সঙ্গে আরেকটি টানবেন না। এইটা অনেক বড় বিষয়। আমাদের বিব্রত না করাই ভাল। আমাদের উকিল বিভিন্ন মামলার উকিল। উনি আমাদের স্থায়ী উকিল না। আমরা রাষ্ট্রের একটি দায়িত্বশীল সংস্থা। আমরা তো মেঠো বক্তব্য দিতে পারবো না। আমরা দেখি প্রমাণ আছে কিনা।’

এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, প্রমাণ পেলে কি করবেন। প্রশ্নের উত্তরে ইকবাল মাহমুদ বলেন, প্রমাণ থাকলে আপনার বিরুদ্ধেও আমলা হতে পারে।

এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন আইনমন্ত্রী জানিয়েছেন তদন্ত শেষ হলে মামলা হবে, এই বিষয়ে জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আইনমন্ত্রী বলতেই পারেন। কিন্তু মন্ত্রীর কথায় তো মামলা হবে না। মন্ত্রীর কথায় অনুসন্ধান হবে না। সুতরাং আইনমন্ত্রী যা বলছেন তার নিজের কথা সেটা উনাকে জিজ্ঞাসা করবেন। আইনমন্ত্রীর কথার কোন প্রভাব দুদকে পরার সম্ভাবনা নাই।’

সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ পেলে যে কারও বিরুদ্ধে তদন্ত করবে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার দুর্নীতির তদন্ত প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। এ সময় দুদক চেয়ারম্যান আরও বলেন, এস কে সিনহার দুর্নীতি বিষয়ে তথ্য প্রমাণ পেলেই তদন্ত করবে কমিশন।

দুদকের আইনজীবীর বক্তব্য অনুযায়ী তদন্ত শেষ পর্যায়ে কিনা সাংবাদিকরা জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আমরা যে আইনজীবী রাখি তা মামলার জন্যে। আইনজীবী যা বলেছে এটা তার নিজস্ব কথা।’

তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়া আইনমন্ত্রী যা বলেছেন তার নিজের বিষয়। আর সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অনুসন্ধান হচ্ছে কি হচ্ছে না তার জবাব আমরা এখন দেবো না। একটা অবৈধ ভাবে ঋণের বিষয়ে অনুসন্ধান চলছে। আর একটার সঙ্গে আরেকটি টানবেন না। এইটা অনেক বড় বিষয়। আমাদের বিব্রত না করাই ভাল। আমাদের উকিল বিভিন্ন মামলার উকিল। উনি আমাদের স্থায়ী উকিল না। আমরা রাষ্ট্রের একটি দায়িত্বশীল সংস্থা। আমরা তো মেঠো বক্তব্য দিতে পারবো না। আমরা দেখি প্রমাণ আছে কিনা।’

এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, প্রমাণ পেলে কি করবেন। প্রশ্নের উত্তরে ইকবাল মাহমুদ বলেন, প্রমাণ থাকলে আপনার বিরুদ্ধেও আমলা হতে পারে।

এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন আইনমন্ত্রী জানিয়েছেন তদন্ত শেষ হলে মামলা হবে, এই বিষয়ে জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আইনমন্ত্রী বলতেই পারেন। কিন্তু মন্ত্রীর কথায় তো মামলা হবে না। মন্ত্রীর কথায় অনুসন্ধান হবে না। সুতরাং আইনমন্ত্রী যা বলছেন তার নিজের কথা সেটা উনাকে জিজ্ঞাসা করবেন। আইনমন্ত্রীর কথার কোন প্রভাব দুদকে পরার সম্ভাবনা নাই।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট