কাঁচা কলা নাকি পাকা কলা স্বাস্থ্যের জন্য কোনটা বেশী উপকারী,

কাঁচা কলা নাকি পাকা কলা স্বাস্থ্যের জন্য কোনটা বেশী উপকারী,

আপনি কি জানেন কলা যখন পাকতে শুরু করে, তখন তার পুষ্টি উপাদানও বদলাতে থাকে? কলায় এমন এক ধরনের এনজাইম থাকে যা ধীরে ধীরে শ্বেতসারকে (চিনির এক অবস্থা যা মিষ্টি নয়) ভাঙতে থাকে এবং এভাবে এক পর্যায়ে চিনিতে পরিণত হয়। কলা যখন পাকে, তখন শ্বেতসার চিনিতে রূপান্তরিত হয় এবং তা হজমে সহজতর হয়।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, কলা পাকলে তার ভিটামিন ও খনিজ উপাদান কমে যায়। এ কারণে কলা রেফ্রিজারেটরে রাখা উচিত। এক্সপ্লোর হেলথিফুড ডট কমের তথ্যমতে, জাপানিরা দেখতে পেয়েছে, কলা পাকলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট তৈরি করে এবং এতে এর ক্যানসারবিরোধী উপাদানও বৃদ্ধি পায়।

কলা যখন ঘন সবুজ বর্ণের ও পুরোপুরি পোক্ত থাকে, তখন একধরনের উপাদান ধারণ করে যাকে বলে টিউমার নেকরোসিস। এটি এমন একধরনের উপাদান, যা অস্বাভাবিক কোষের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

এ ছাড়া দেহের রোগ প্রতিরোধব্যবস্থা শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে হলুদ খোসার ওপর কালো দাগ পড়া কলা সবুজ কলার চেয়ে আটগুণ বেশি কার্যকর।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট