কাজে মন বসাতে চকলেট কফি

কাজে মন বসাতে চকলেট কফি

শহুরে জীবনে পানীয় হিসেবে কফি বেশ জনপ্রিয়। বিশ্বের লাখ লাখ মানুষের দিনের শুরু হয় এক কাপ উষ্ণ কফির সঙ্গে। কাজের ফাঁকে আর সন্ধ্যার আড্ডায় কফি- এখন অনেকেরই জীবনের অংশ। তার মনোমুগ্ধকর সুবাস, স্বাদ এবং স্বতন্ত্র গন্ধ ছাড়াও আরো অনেক কাজে কফি আশীর্বাদ স্বরূপ। বিজ্ঞানীরা বলছেন- শুধু আড্ডায় নয়, কফির সঙ্গে চকলেট মেশালে তা কাজেও মনসংযোগ বাড়াতে সাহায্য করে।

ওজন কমানো, শারীরিক সক্রিয়তা বাড়ানো, ডায়াবেটিস, ডিমেনশিয়ার ঝুঁকি কমানোর মতো কফির গুণের কথা ডায়েটিশিয়ানরা বলে থাকলেও এর মধ্যে থাকা প্রচুর পরিমাণ ক্যাফেইনের কারণে চিকিত্সকরা বরাবরই কফিকে স্বাস্থ্যকর খাবারের তালিকায় ফেলতে নারাজ।তবে একটি নতুন গবেষণা বলছে, চকলেট সমৃদ্ধ গরম কফি মনসংযোগ আরও গভীর করতে সাহায্য করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব জর্জিয়া ও ক্লার্কসন ইউনিভার্সিটির গবেষকরা জানাচ্ছেন, উত্কণ্ঠা ও ক্লান্তি কমিয়ে মনযোগ ও সতর্কতা বাড়াতে বিশেষভাবে কার্যকর চকলেট কফি।গবেষক আলি বুলানির মতে, চকলেট মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে। যা শেখার ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ক্যাফেইন শুধু খেলে তা উত্কণ্ঠা বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু ক্যাফেইনের সঙ্গে চকলেট মেশালে তা উত্কণ্ঠা বশে রাখতে পারে।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের তিন ভাগে ভাগ করে এক দলকে দেওয়া হয় চকলেট সমৃদ্ধ ক্যাফেইন, দ্বিতীয় দলকে শুধু ক্যাফেইন ও তৃতীয় দলকে কিছুই দেওয়া হয় না। এরপর তাদের মুড ও শেখার ক্ষমতা পরীক্ষা করে দেখা হয়। স্ক্রিনে কিছু লেটার ফ্ল্যাশ করে খেয়াল করতে বলা হয় কখন এ-র পর এক্স আসছে। কখন বিজোড় সংখ্যা পরপর আসছে এবং কিছু বিয়োগ করতে দেওয়া হয়।ফলাফল নিয়ে বুলানির দাবি, চকলেট ও ক্যাফেইন মনসংযোগ ও একাগ্রতা বাড়াতে সাহায্য করে। পড়ুয়াদের জন্যও চকলেট কফি অত্যন্ত উপকারী বলে দাবি করেছেন তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট