কারাগার থেকে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

কারাগার থেকে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) এই কেবিনে নেয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী এখন থেকে এখানে রেখেই চিকিৎসা দেয়া হবে তাকে।

শনিবার (০৬ অক্টোবর) বিকেল পৌনে চার’টার দিকে বিএসএমএমইউ’তে নিয়ে যাওয়া হয় বিএনপি চেয়ারপারসনকে। সেখানে খালেদা জিয়ার জন্য ৬১২ নম্বর কেবিনে থাকলেও তার জন্য পাশের ৬১১ নম্বর কেবিনটিও বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএসএমএমইউ’র একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। ওই কক্ষে তার সহকারী বা কারা নিরাপত্তারক্ষীরা থাকতে পারবেন বলেও জানান তিনি। তবে ওই কর্মকর্তা নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি।

বিএসএমএমইউ সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালের কেবিন ব্লকের ছয়তলার ৬১২ নম্বর কেবিনটি ডিলাক্স কেবিন হিসেবে পরিচিত। এসির ব্যবস্থা থাকা কেবিনটির ভেতরে দুটি খাট, টিভি ও অ্যাটাচড বাথরুম রয়েছে। রুমের পাশেই রয়েছে সোফাসেট। এছাড়া রুমের ভেতরে কলিং বেল রয়েছে যাতে করে রোগী প্রয়োজন হলে নার্স বা অন্য কাউকে ডাকতে পারবেন।

এর আগে খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হবে এমন সংবাদ পাওয়ার পর ৬১১ ও ৬১২ কেবিনটি ধুয়ে মুছে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়ার একটি রিট আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার আদেশ দেন।

এছাড়া খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন করে সেখানে বিএসএমএমইউ এর ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল জলিল চৌধুরী ও ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. বদরুন্নেসা আহমেদকে রেখে স্বাচিপ বা ড্যাবের সদস্য বা কর্মকর্তা নয় এমন আরও তিনজনকে যুক্ত করে ৫ সদস্যের বোর্ড গঠনের নির্দেশ দেন আদালত। আর এ বোর্ডের অধীনে খালেদা জিয়া তার পছন্দমতো ফিজিওথেরাপিস্ট বা গাইনোকলোজিস্ট বা মেডিকেল টেকনিশিয়ান নিযুক্ত করতে পারবেন বলেও আদালত তার নির্দেশে বলেছেন।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। ওই দিন থেকেই রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন বেগম জিয়া। কারাগারে যাওয়ার পর ৭ এপ্রিল বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়েছিল। ওই সময় তাকে ৫১২ নম্বর কেবিনে রাখা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট