‘কিছু মুসলিম দেশ ফিলিস্তিনি শহীদদের রক্তের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছে’

‘কিছু মুসলিম দেশ ফিলিস্তিনি শহীদদের রক্তের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছে’

ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন- হামাস হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে মুসলিম দেশগুলোর সম্পর্ক স্থাপন করার অর্থ হবে ফিলিস্তিনি শহীদদের রক্তের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা।

হামাসের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইসমাইল রেদোয়ান ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রচেষ্টার বিরোধিতা করতে আরব ও মুসলিম দেশগুলোর জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগ ফিলিস্তিন বিরোধী একটি ষড়যন্ত্র যা সফল হবে না।

রেদোয়ান বলেন, ফিলিস্তিনি জনগণের ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ের ক্ষেত্রে প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো সম্মুখ সারিতে থেকে যুদ্ধ করছে।

গাজা উপত্যকায় তৎপর ফিলিস্তিনি সংগঠনগুলো এক বিবৃতিতে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে মধ্যপ্রাচ্যের কোনো কোনো আরব দেশ যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে তার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, কুদস দখলদার শক্তি ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করা হলে তা হবে ফিলিস্তিনি শহীদদের রক্তের সঙ্গে প্রতারণা করা।

সাম্প্রতিক সময়ে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি আরব দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করছে এবং এসব দেশের শীর্ষে রয়েছে সৌদি আরব। এমন সময় এ প্রচেষ্টা চলছে যখন ১৯৬৭ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত সময়ে অবৈধ ইহুদিবাদী সরকার অন্তত ৪২ হাজার ফিলিস্তিনিকে হত্যা এবং আরো লাখ লাখ মানুষকে আহত করেছে। এ ছাড়া, মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলা মসজিদুল আকসা  দখল করে রেখেছে তেল আবিব।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট