কোটা ইস্যুতে অ্যাটর্নি জেনারেলের মতামত প্রস্তুত

কোটা ইস্যুতে অ্যাটর্নি জেনারেলের মতামত প্রস্তুত

সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ইস্যুতে সরকারের পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া মতামত প্রস্তুত করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আজ রাতেই সংশ্লিষ্ট দপ্তরে মতামতটি পাঠানো হবে।

সোমবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তবে তিনি কী মতামত দিয়েছেন সে বিষয়ে কিছুই জানাননি।

এ বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার মতামত প্রস্তুত হয়েছে। আজই তা পাঠানো হবে।

মতামতে কি বলেছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা বলা যাবে না। আমি শুধু রায়ের বিষয়ে মতামত দেবো। সিদ্ধান্ত নেবে সরকার। তাই মতামতের বিষয়বস্তু নিয়ে গণমাধ্যমে আমি কোনো মন্তব্য করবো না।’

এর আগে সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গত ২ জুলাই মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সচিবকে প্রধান করে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করে সরকার। প্রাথমিকভাবে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হলেও পরবর্তীতে আরো ৯০ কার্যদিবস সময় পায় এ কমিটি।

প্রসঙ্গত, কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে গত কয়েক মাস ধরে আন্দোলন করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ এবং আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের গ্রেপ্তারের ঘটনাও ঘটে।

উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা দীর্ঘদিনের। ১৯৭২ সালের ৫ নভেম্বর এক নির্বাহী আদেশে সরকারি, আধা-সরকারি, প্রতিরক্ষা ও জাতীয়করণ হওয়া প্রতিষ্ঠানে জেলা ও জনসংখ্যার ভিত্তিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা এবং ক্ষতিগ্রস্ত নারীদের জন্য ১০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি প্রবর্তন করা হয়।

গত ১১ জুলাই মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এক সংবাদ সম্মেলন বলেন, আদালতের সিদ্ধান্তে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংরক্ষণের আদেশ অগ্রাহ্য করার কোনো সুযোগ নেই। অগ্রাহ্য করা হলে তা হবে আদালত অবমাননার শামিল।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট