কোন ম্যাচ না খেলেই দেশে ফিরছেন তাসকিন!

কোন ম্যাচ না খেলেই দেশে ফিরছেন তাসকিন!

প্রথমবারের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগের আয়োজন করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। ৫ অক্টোবর শুরু হওয়া আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগ (এপিএল) চলবে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত। টুর্নামেন্ট খেলতে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে উড়াল দেন পেসার তাসকিন আহমেদ। তবে, নিশ্চিত না হলেও বিভিন্ন মাধ্যমে শোনা যাচ্ছে, আরব আমিরাত থেকে আগামীকাল ফিরে আসছেন তাসকিন।

স্ত্রী নাঈমার অসুস্থতার কারণেই নাকি দেশে ফিরছেন তাসকিন। তার দল কান্দাহার নাইটস এরই মধ্যে দুটি ম্যাচ খেলেছে। কোনোটিতেই একাদশে ছিলেন না বাংলাদেশি এই পেসার। আগামীকাল কাবুল জওয়ানের বিপক্ষে মাঠে নামবে কান্দাহার। সে ম্যাচের আগেই দেশের বিমান ধরবেন তাসকিন-এমনটাই শোনা যাচ্ছে।

গত ৬ অক্টোবর তাসকিনের দল কান্দাহার নাইটস প্রথম ম্যাচ খেলতে নামে নাঙ্গরহারের বিপক্ষে। এবারই প্রথমবারের মতো কোনো বিদেশি লিগে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সুযোগটা হাতছাড়া করেননি ডানহাতি পেসার তাসকিন। তাকে নিয়ে বাংলাদেশি ক্রিকেট পাগলদের আগ্রহটা একটু বেশিই চোখে পড়ে কান্দাহার টিম ম্যানেজমেন্টের। নাঙ্গরহারের বিপক্ষে তাসকিনের অনুপস্থিতিতে ম্যাচ জিততে পারেনি কান্দাহার। তাসকিনকে না নেওয়ার সমালোচনা চোখে এড়িয়ে যায়নি টিম ম্যানেজমেন্টের। তারা বাংলাদেশি এই পেসারকে নিজেদের সেরা অস্ত্র হিসেবেই দেখছেন বলে জানান।

নিজেদের ফেসবুক পেজে তাসকিনের একাদশে না থাকার কারণ জানাতে গিয়ে কান্দাহার নাইটস জানায়, প্রচুর তাসকিন ভক্ত আমাদের জিজ্ঞেস করেছে কেন তাকে প্রথম ম্যাচে একাদশে রাখা হলো না। তাসকিনকে খেলানো হয়নি, কারণ সে আমাদের মূল পেসার। সামনে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আছে। আমরা চেয়েছি তাসকিনকে প্রথম ম্যাচে বিশ্রামে রাখতে। শারজার গরমে আমাদের একটানা ম্যাচ খেলতে হবে। তাই তাসকিনকে এবং আরও অনেককে বিশ্রামে রাখা হয়।

সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপের দলে জায়গা হয়নি তাসকিনের। তবে, আফগান লিগের নিলামে খেলোয়াড় ড্রাফটে ছিলেন তিনি। এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বরের নিলামে দল পাননি বাংলাদেশি এই পেসার। পরে ৩০ হাজার ডলারে তাকে দলে নেয় কান্দাহার নাইটস। যার বাংলাদেশি মূল্য প্রায় ২৫ লাখ টাকা। সিলভার ক্যাটাগরিতে কান্দাহার নাইটসের হয়ে নাম লেখান তিনি।

তাসকিনদের দলটির আইকন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন আফগানিস্তানের অধিনায়ক আসগর আফগান। এছাড়াও তাসকিন সতীর্থ হিসেবে পেয়েছিলেন আয়ারল্যান্ডের পল স্টার্লিং, কেভিন ওব্রায়েন, আফগানিস্তানের নাজিবুল্লাহ জাদরান, ইংল্যান্ডের টাইমাল মিলস, স্যাম বিলিংসদের মতো তারকাদের। বোর্ডের অনুমতি না মেলায় খেলতে যেতে পারেননি পাকিস্তানের পেসার ওয়াহাব রিয়াজ এবং ইফতেখার আহমেদ।

প্রথমারের মতো এই আসরে খেলছে ৫টি দল। দলগুলো হলো নাঙ্গরহার, কান্দাহার নাইটস, কাবুল, বালখ এবং পাকতিয়া। ১৯ দিনে মোট ২৩টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আরব আমিরাতের শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই আয়োজন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট