ক্যারিবীয়দের রেকর্ড ব্যাবধানে হারালো ভারত

ক্যারিবীয়দের রেকর্ড ব্যাবধানে হারালো ভারত

পাত্তাই পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ভারতের সামনে ব্যাটিং কিংবা বোলিং- কিছুতেই দাঁড়াতে পারেনি সফরকারীরা। রাজকোটের একপেশে টেস্ট ম্যাচটি ভারত জিতে নিয়েছে তিন দিনেই। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর চমৎকার বোলিংয়ে স্বাগতিকরা পেয়েছে ইনিংস ও ২৭২ রানের বিশাল জয়।

রাজকোটে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৬৪৯ রান করে ভারত। দলের পক্ষে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ১৩৯, অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা পৃথ্বী শ ১৩৪ ও রবীন্দ্র জাদেজা অপরাজিত ১০০ রান করেন।

ভারতের রানের পাহাড় টপকানোর লক্ষ্য নিয়ে নিজেদের ইনিংস শুরু করে দ্বিতীয় দিন শেষে ৬ উইকেটে ৯৪ রান তুলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তৃতীয় দিন সকালে খেলতে নেমে মধাহ্ন-বিরতির আগেই নিজেদের ইনিংস গুটিয়ে নেয় ক্যারিবীয়রা। ভারতীয় বোলারদের তোপে ১৮১ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা। দলের পক্ষে রোস্টন চেজ ৫৩ ও কেমো পল ৪৭ রান করেন। ভারতের রবীচন্দ্রন অশ্বিন ৩৭ রানে ৪টি উইকেট নেন।

বোলারদের নৈপুন্যে প্রথম ইনিংস থেকে ৪৬৮ রানের লিড পায় ভারত। নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে প্রথম ইনিংসে এটি ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ লিড। ২০০৭ সালে ঢাকায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ৪৯২ রান ভারতের সর্বোচ্চ লিড।

৪৬৮ রানের লিড নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ফলোঅন করতে বাধ্য করে ভারত। ফলে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে লড়াই করার চেষ্টা করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। উদ্বোধণী জুটিতে ৩২ রান আসার পর দলের স্কোর সামনের দিকে এগিয়ে নিতে থাকেন কাইরেন পাওয়েল। ফলে এক পর্যায়ে ভালো অবস্থায় ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২ উইকেট ৯৬ রান তেমনই ইঙ্গিত দেয়। কিন্তু পরের দিকের ব্যাটসম্যানরা শুরুর ধারাটা ধরে রাখতে না পারায় এই ইনিংসে ১৯৬ রানে গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ ৮ উইকেট ১শ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে ক্যারিবীয়রা। হাফ-সেঞ্চুরি তুলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৩ রান করেন ওপেনার কাইরেন পাওয়েল। তার ৯৩ বলের ইনিংসে ৮টি চার ও ৪টি ছক্কা ছিলো।

এই ইনিংসে ভারতের পক্ষে ৫৭ রানে ৫ উইকেট নেন অর্থোডক্স স্পিনার কুলদীপ যাদব। ৪ ম্যাচের টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত ৫ বা ততোধিক উইকেট নিলেন কুলদীপ। ম্যাচ সেরা হয়েছেন অভিষেক ম্যাচে ১৩৪ রান করা ভারতের পৃথ্বী শ।

আগামী ১২ অক্টোবর থেকে হায়দারাবাদে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: প্রথম ইনিংস ১৪৯.৫ ওভারে ৬৪৯/৯ (ডিক্লে.)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: প্রথম ইনিংস ৪৮ ওভারে ১৮১ (রোস্টন চেস ৫৩, কিমো পল ৪৭, দেবেন্দ্র বিশু ১৭; অশ্বিন ৪/৩৭, সামি ২/২২) ও দ্বিতীয় ইনিংস ৫০.৫ ওভারে ১৯৬ (কিয়েরন পাওয়ের ৮৩, রোস্টন চেস ২০, শাই হোপ ১৭; কুলদীপ ৫/৫৭, জাদেজা ৩/৩৫, অশ্বিন ২/৭১)।

ফল: ভারত ইনিংস ও ২৭২ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা: পৃথ্বি শ।

 

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট