খাশোগি হত্যাকাণ্ডের বিস্তারিত জানাল তুরস্ক: ঢুকতেই শ্বাসরোধে হত্যা, পরে টুকরো টুকরো

খাশোগি হত্যাকাণ্ডের বিস্তারিত জানাল তুরস্ক: ঢুকতেই শ্বাসরোধে হত্যা, পরে টুকরো টুকরো

সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে বিস্তারিত প্রকাশ করেছে তুরস্ক। গতকাল (বুধবার) তুরস্কের প্রধান কৌঁসুলি’র দপ্তর থেকে এ সংক্রান্ত বিবরণ তুলে ধরা হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়। এরপর পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী মরদেহ কেটে টুকরো টুকরো করে সরিয়ে ফেলা হয়।

সৌদি আরবের প্রধান কৌঁসুলি শেখ সৌদ আল-মোজেব ইস্তাম্বুল ছাড়ার কয়েক ঘণ্টা পর এসব কথা প্রকাশ করল তুর্কি প্রধান কৌঁসুলি ইরফান ফিদানের দপ্তর। খাশোগি হত্যার বিষয়ে কথা বলতেই তুরস্ক গিয়েছিলেন সৌদি প্রধান কৌঁসুলি।

তুর্কি বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সৌদি প্রধান কৌঁসুলির সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে। আমরা আসল সত্য প্রকাশ করার জন্য খোলা মন নিয়ে বৈঠকে বসি। কিন্তু বৈঠকে কোনো সুনির্দিষ্ট ফল পাওয়া যায়নি।

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট ভবনে খ্যাতনামা সাংবাদিক খাশোগিকে হত্যা করে সৌদি ঘাতক টিম। গত বছর যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সৌদি আরবের ক্ষমতার কেন্দ্রে আসার পর থেকে রোষানলে পড়েন ৫৯ বছর বয়সী খাশোগি। তিনি দেশ ছেড়ে স্বেচ্ছা নির্বাসনে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট-এ যুবরাজের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে একের পর এক কলাম লিখেছিলেন খাশোগি। অভিযোগ রয়েছে, যুবরাজের নির্দেশে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় এ হত্যা সংঘটিত হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন মহল থেকে মরদেহ হস্তান্তরের দাবি উঠেছে। তার স্বজন ও বন্ধুরা বলেছেন, আমরা খাশোগির লাশ চাই। তাকে দাফন করব।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট