খাশোগি হত্যার ‘সব সত্য’ প্রকাশ করুন: সৌদির প্রতি তুরস্কের আহ্বান

খাশোগি হত্যার ‘সব সত্য’ প্রকাশ করুন: সৌদির প্রতি তুরস্কের আহ্বান

সৌদি আরবের ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ‘পুরো রহস্য’ উন্মোচনের জন্য সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু। সৌদি আরবের এটর্নি জেনারেল সৌদ আল-মোজেব যখন তুরস্ক সফর করছেন তখন এ আহ্বান জানালেন তিনি।

সোমবার আঙ্কারায় এক সংবাদ সম্মেলনে চাভুসওগ্লু বলেন, খাশোগি হত্যার ‘পুরো সত্য’ উন্মোচন করতে হবে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রত্যেক ব্যক্তিকে খুঁজে বের করার জন্য আঙ্কারা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও জানান তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

খাশোগির লাশ এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে চাভুসওগ্লু বলেন, সৌদি কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে তদন্ত শেষ করে হতভাগ্য সাংবাদিকের লাশ বের করে দিতে হবে।

তুরস্ক সফররত সৌদি এটর্নি জেনারেল আল-মোজেব সোমবার সকালে তার তুর্কি সমকক্ষ ইরফান ফিদানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন এবং বিকেলে ইস্তাম্বুলস্থ সৌদি কনস্যুলেট পরিদর্শনে যান। তুরস্ক সফরে যাওয়ার আগে আল-মোজেব স্বীকার করেন, পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী খাশোগিকে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করা হয়েছে।

সৌদি রাজতন্ত্র-বিরোধী সাংবাদিক খাশোগি হত্যাকাণ্ডের তদন্তে তুরস্ককে সহযোগিতা করার লক্ষ্যে সৌদি আরবের প্রধান সরকারি কৌঁসুলি আঙ্কারা সফরে গেছেন।

সোমবারের বৈঠকে তিনি খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে এ পর্যন্ত তুরস্ক যেসব তথ্য ও প্রমাণ পেয়েছে তা সৌদি আরবের কাছে হস্তান্তর করার আহ্বান জানান। কিন্তু তুর্কি সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সৌদি এটর্নি জেনারেলের এ আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছে আঙ্কারা।

আমেরিকায় স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকা জামাল খাশোগি গত ২ অক্টোবর ব্যক্তিগত কিছু কাগজপত্রের জন্য ইস্তাম্বুলের সৌদি কন্স্যুলেট ভবনে যান এবং সেখান থেকে তিনি আর বের হননি। এ ঘটনায় তুরস্কের কর্মকর্তারা দ্রুতই যে প্রমাণ তুলে ধরেন তাতে বলা হয়- খশোগিকে কন্স্যুলেটের ভেতরে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা এবং পরে তার দেহ টুকরো টুকরো করা হয়েছে।

প্রথম দিকে সৌদি আরব হত্যাকাণ্ডের কথা অস্বীকার করলেও পরবর্তীতে তা স্বীকার করে। সৌদি আরব এক পর্যায়ে একথাও স্বীকার করে যে, খাশোগিকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট