গুজরাটে বন্যায় ১৭ স্বজনসহ ১১১ জনের মৃত্যু

গুজরাটে বন্যায় ১৭ স্বজনসহ ১১১ জনের মৃত্যু

ভারতের গুজরাটে বন্যা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। বুধবার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ বনসকণ্ঠ জেলার খারিয়া গ্রাম থেকে ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, মৃতরা সবাই একই পরিবারের সদস্য। এ নিয়ে গুজরাট রাজ্যে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১১ জনে দাঁড়ালো।

বন্যায় রাজ্যের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলোর মধ্যে অন্যতম বনসকণ্ঠ জেলা। জেলা সদর পালনপুর থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে কাদামাখা অবস্থায় মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

জেলাশাসক দিলীপ কুমার রানা জানিয়েছে, মৃতদেহগুলো কাদামাখা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এরা প্রত্যেকেই একই পরিবারের সদস্য বলে ধারণা।

হাজার হাজার বাসিন্দাদের বন্যা কবলিত এলাকা থেকে দূরে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে একসঙ্গে কাজ করছে সেনা ও বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির জন্য ৫০০ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মৃতদের পরিবার পিছু দুই লাখ ও গুরুতর আহতদের জন্য ৫০ হাজার রুপি অর্থসাহায্য ঘোষণা করা হয়েছে। নিজের রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন মোদি হেলিকপ্টারে বন্যা কবলিত এলাকা ঘুরে দেখেন।

বন্যা কবলিত জেলাগুলোতে সংক্রামন ও পানিবাহিত রোগ প্রতিরোধে কাজ করছে ৫০০ জনের একটি দল।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট