গুটিকতক ভ্রান্তদের কারণে আজ গোটা মুসলিম উম্মাহ বিপদে: প্রধানমন্ত্রী

গুটিকতক ভ্রান্তদের কারণে আজ গোটা মুসলিম উম্মাহ বিপদে: প্রধানমন্ত্রী

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম কখনোই আত্মঘাতী হওয়াকে সমর্থন করে না। কিছু মানুষের জন্য গোটা মুসলিম উম্মা বিপদের মুখে পড়ে যাচ্ছে। দেশে সব ধর্মের মানুষ যেন শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারে, শান্তিপূর্ণভাবে জীবনযাপন করতে পারে সেদিকে সবার লক্ষ্য রাখতে হবে।

শনিবার আশকোনার হজক্যাম্পে হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় তিনি আরো বলেন, দেশ থেকে হজে যাওয়া যাত্রীদের সুবিধা নিশ্চিত করতে হজ কার্যক্রম আধুনিক করে গড়ে তোলা হযেছে। আমি যখনই হজে গেছি ততবার সেখানে কি কি সমস্যা আছে সেসব দেখে এসেছি। পরে সৌদি বাদশাকে জানিয়েছি সেখানকার সমস্যাগুলো। তখন আমি ক্ষমতায় না থাকলেও এই কাজগুলো করেছি, সেখানকার সরকারকে জানিয়েছি। যেন পরবর্ততে সমস্যাগুলোর সমাধান করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে হজযাত্রীদের জন্য তার সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। হাজিদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানান তিনি। হজ ব্যবস্থাপনার সফলতার ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী জানান, ২০০৬ সালে বিএনপির শাসনামলে বাংলাদেশ থেকে হজযাত্রীর সংখ্যা ছিল ৪৭ হাজার মাত্র। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর হজযাত্রীদের সংখ্যা বাড়তে থাকে। এবার এক লাখ ২৭ হাজার লোক হজে যাচ্ছেন। এটাই বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ হজযাত্রী বলে জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি অনেক বার হজ ও ওমরা করেছি। আমার দাদা-দাদি, নানা-নানি, বাবা-মাসহ সবার জন্য বদলি হজ করিয়েছি। আমি যতবার হজে গেছি সবসময় হজযাত্রীদের সমস্যা কী সেটা জানার চেষ্টা করেছি। হজের সময় আমি মিনার তাঁবুতে ঘুরে ঘুরে সার্বিক অবস্থা দেখেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি তখন সরকারে না, তবুও হজযাত্রীদের অসুবিধার কথা সৌদি বাদশাকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছি। আমরা ক্ষমতায় আসার পর হজযাত্রীদের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। দিন দিন হজযাত্রীদের সেবার মান বাড়ছে।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে ইসলামের উন্নয়নের জন্য সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উন্নয়ন, মসজিদভিত্তিক শিক্ষা, মডেল মসজিদ প্রকল্প, কওমি মাদ্রাসা সনদের স্বীকৃতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন।

বক্তৃতার এক পর্যায়ে স্বজন হারানোর প্রসঙ্গ তুলে আবেগাপ্লুত শেখ হাসিনা হজযাত্রীদের কাছে নিজের জন্য, পরিবারের সদস্যদের জন্য এবং সরকার ও দেশবাসীর জন্য দোয়া চান।

পাশাপাশি হজ যাত্রীদের বিমান ভাড়ার অতিরিক্ত ট্যাক্সের তিন হাজার টাকা নেয়ার সিদ্ধান্ত তার নির্দেশে বাতিল করা হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

এখন হজে যাওয়া যাত্রীরা সব ধরনের খবর পাচ্ছেন ইন্টারনেটে, ওয়েবসাইটে পাচ্ছেন হজবিষয়ক সব তথ্য, অনলাইনে রিপোর্ট করতে পারছেন হজযাত্রীরা।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক