ঘুরে আসুন পান্থমাই

ঘুরে আসুন পান্থমাই

প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগের জন্য ঘোরাঘুরি করতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াই কঠিন। অনেকে ভ্রমণের নেশায় দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশের দর্শনীয় স্থানের টানে ছোটেন। অথচ দেশের ভিতরেই এমন কিছু স্থান আছে যেখানে আপনি চাইলে সহজেই ঘুরে আসতে পারেন।

মনকাড়া, দৃষ্টিনন্দন এসব স্থান ঘুরতে একদিকে যেমন আপনার টাকা বাঁচবে অপরদিকে আপনি পাবেন বিনোদন। নজরকাড়া এমনই একটি স্থান হলো সিলেটের পান্থমাই। এখানে প্রতিদিনই দেশের নানা প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা ঘুরতে আসেন। ইচ্ছে করলে আপনিও ঘুরে আসতে পারেন স্ব-পরিবার নিয়ে। জেনে নিন পান্থমাই সম্পর্কে-

পান্থমাই : পান্থমাই ঝরনা ভারতে অবস্থিত। এটি ভারতে অবস্থিত হলেও এর সৌন্দর্য পুরোটাই বাংলাদেশ থেকে দেখা যায়। এর অসম্ভব সৌন্দর্য দেখে আপনি অভিভূত হবেন।

ঝরনার বৈশিষ্ট্য: পান্থমাই ঝরনা পাহাড়ি ঢল বেয়ে পাথরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়। এসময় এটি বেশ গর্জন করতে থাকে। ঝরনার পুরো পানিটাই বাংলাদেশে প্রবাহিত হয়।

ঝরনা থেকে গড়িয়ে পড়া পানিতেই তৈরি হয়েছে ছোট নদী। স্থানীয়রা এ নদীকে ছড়া বলেন। আর পান্থমাই জলপ্রপাত এ দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন বলে একে ফাটা ছড়া বা ঝরনা বলা হয়। এছাড়া পান্থমাই গ্রামের চারপাশ খুব চমৎকার। ভ্রমনের সময় আপনাকে বাড়তি আনন্দ দেয় এগুলো। এখানে রয়েছে বড় একটি খেলার মাঠ।

যেভাবে যাবেন : রাজধানী ঢাকাসহ দেশের যেকোনো জেলা থেকে যেতে হবে সিলেট শহরে। শহরের বিমানবন্দর রোড দিয়ে অটোরিকশায় পান্থমাইয়ের পথ। ভাড়া করার সময় অতিরিক্ত ভাড়া গুণতে হচ্ছে কিনা অবশ্যই খেয়াল রাখবেন।

রাত যাপন : পান্থমাই থাকার তেমন ভালো ব্যবস্থা না থাকলেও সিলেট শহরে অনেক হোটেল-মোটেল রয়েছে। ৩শ’ থেকে শুরু করে ৬ হাজার টাকা পর্যন্ত রুম ভাড়া পাওয়া যায়।  এগুলোর নিরাপত্তাব্যবস্থাও ভালো।

খাওয়াদাওয়া : আপনি চাইলে পান্থমাই যাওয়ার সময়ই সিলেট থেকে খাবার নিয়ে যেতে পারেন। ওখানে বাজার থাকলেও দুপুরে খাওয়ার তেমন ভালো ব্যবস্থা নেই। তবে সেখানে স্থানীয়দের রান্না করা রেস্টুরেন্টে যেতে পারেন, কম খরচে ভালো খাবার পাবেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট