চলতি মাসে হতে পারে হাসিনা-মোদি বৈঠক

চলতি মাসে হতে পারে হাসিনা-মোদি বৈঠক

চলতি মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক হতে পারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। এ ব্যাপারে পরিকল্পনা চূড়ান্ত করছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

ভারতের গণমাধ্যম ইকনোমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ মাসে পশ্চিমবঙ্গে শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী পরিদর্শনে যাবেন শেখ হাসিনা। সেখানে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী যৌথভাবে ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, উহানে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে সফল সম্মেলনের পর মে মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতের পররাষ্ট্রনীতির সমালোচক দুই প্রতিবেশী নেপাল ও বাংলাদেশের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন।

ভারতীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আগামী ১১ মে নেপাল সফরে যাবেন মোদি। সফরে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক কিছু চুক্তি হওয়ার কথা রয়েছে।

এরপরই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে তার। বিশ্বভারতীতে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তায় নির্মিত হয়েছে বাংলাদেশ ভবন।

বর্তমানে দিল্লির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক যাচ্ছে ঢাকার। চলতি বছরই জাতীয় নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশে। এর আগে গত ১৯ এপ্রিল লন্ডনে কমনওয়েলথ সম্মেলনের ফাঁকে বৈঠক করেন হাসিনা ও মোদি।

সেখানে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে শান্তিনিকেতনে বৈঠকের বিষয়টি প্রস্তাব করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে ভবিষ্যৎ তিস্তা চুক্তি নিয়ে আলোচনা হতে পারে। ভারতের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের অনিচ্ছার কারণেই তিস্তা চুক্তি হচ্ছে না।

শেখ হাসিনা ও নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি অলির সঙ্গে বৈঠকে মাল্টি-সেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকনোমিক কো-অপারেশনের (বিমসটেক) চতুর্থ সম্মেলন নিয়েও কথা বলবেন মোদি। সাত সদস্য বিশিষ্ট বিমসটেককে সার্কের বিকল্প হিসেবে গড়ার চেষ্টা করছেন মোদি।

সম্প্রতি পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে সার্ক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে ভারত ও বাংলাদেশের বর্জনের কারণে সম্মেলনটি হয়নি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট