চিংড়ি মাছের কোফতা

চিংড়ি মাছের কোফতা

মাছ, না পোকা! বিতর্কিত সবসময়ই। তারপরও ছোট-বড় সবার প্রিয় চিংড়ি। খাওয়ার সময় চিংড়ির যে কোনো একটি পদ হলেই খুশি বাড়ির সবাই। তাই বাড়ির সব বয়সী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে এবারের আয়োজন চিংড়ি মাছের কোফতা।

চিংড়ি দেখলে অনেকেরই জিভের জল বাগ মানে না। দিনদিন যে হারে চিংড়ির চাহিদা বাড়ছে, তাতে মাছে-ভাতে বাঙালি অনায়াসে ছিনিয়ে নিতে পারে “চিংড়ি-ভাতে” শিরোপাটা। আজ “রান্নাঘরে”-তে রইল চিংড়ি নিয়ে জিভে জল আনা এমনই এক রেসিপি।

উপকরণ –

  • ৫০০ গ্রাম চিংড়ি
  • ২টি বড় সাইজের পিঁয়াজ কোঁচানো
  • ২ চামচ পাউরুটির গুঁড়ো (বিস্কুটের গুঁড়োও ব্যবহার করতে পারেন)
  • ২ চামচ সরষের তেল
  • ২ চামচ লঙ্কা কুচি
  • ২-৩টি তেজপাতা
  • হাফ কাপ নারকেল কোড়া
  • ১ চামচ ধনেপাতা কুচি
  • ১টি ডিম
  • ২ চামচ হলুদ গুঁড়ো
  • ১ চামচ আদা বাটা
  • স্বাদমতো লবণ

পদ্ধতি –

ভালো করে চিংড়িগুলো ধুয়ে নিন।

এবার ভালো করে সেগুলো সিদ্ধ করুন।

চিংড়ি সিদ্ধ হয়ে গেলে আঁশ ছাড়িয়ে সেটিকে ভালো করে বেটে নিন।

এবার চিংড়ি বাটায় সামান্য নুন, পিঁয়াজ কুচি, লঙ্কা ও কেটে রাখা ধনে পাতা মেশান।

উপকরণগুলোকে এবার ভালো করে মেশান।

ভালো করে সেগুলো মিশে গেলে মিশ্রণটি দিয়ে বল বানান।

একটি পাত্রে ডিম ফাটিয়ে নিন।

এবার তৈরি করে রাখা বলগুলো ডিমের মধ্যে চুবিয়ে পাউরুটি বা বিস্কুটের গুঁড়ো মাখিয়ে দিন।

এবার একটি কড়াইয়ে তেল ঢালুন।

তেল গরম হলে তাতে বলগুলো ছাড়ুন।

বলগুলো ভালো করে ভাজা হয়ে গেলে তুলে নিন।

নারকেল বাটা থেকে দুধ বের করে নিন।

এবার পিঁয়াজ, হলুদ ও আদা বাটা মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন।

কড়াইয়ে তেল গরম করুন।

তেল গরম হলে তাতে তেজপাতা দিন।

এবার তাতে মশলাগুলো ঢেলে দিন।

৪-৫ মিনিট ভাজার পর সামান্য জল দিন।

এবার মিশ্রণটিতে নারকেলের দুধ ঢালুন। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন।

সামান্য নুন মেশান।

এবার কড়াইয়ে ধীরে ধীরে বলগুলো দিয়ে, অল্প আঁচে তা রেখে দিন মিনিট দশেক।

নামানোর আগে সামান্য ঘি ছড়িয়ে দিন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট