চিন্তামুক্ত ও সুস্থ থাকতে…

চিন্তামুক্ত ও সুস্থ থাকতে…

সারাদিনের দৌড়ঝাঁপের পর সকলেই শরীর ও মন সুস্থ রাখতে চান। সকালে উঠে হাঁটাহাঁটি, জিমে যাওয়া – কোনও কিছুই বাদ দিতে চান না। তবে সময়ের অভাবে নিয়মিত জিমে যাওয়া সম্ভব নয়। শরীর ক্লান্ত থাকলে ভোরবেলাতেও হাঁটাহাঁটি করতে মন সায় দেয় না। কিন্তু, এতকিছুর পরও ঘরে বসেই পাইলেটস্ মারফত সুস্থ থাকা যায়। সতেজ থাকা যায়। শরীর, মন ভালো রাখা যায়। প্রতিটি মানুষই সুস্থ শরীর, চাপমুক্ত জীবন লাভের আশায় পাইলেটস্ এক্সারসাইজ করতে পারেন।

maxresdefault

রোল আপ মুভ– নির্মেদ কোমর পেতে রোল আপ মুভের কোনও বিকল্প হয় না। রোল আপ মুভ করার আগে ঘরের মেঝেতে চাটাই বা চাদর পেতে নিন। এবার সেখানে লম্বা হয়ে শরীরটাকে এলিয়ে দিন। থাই দুটিকে কাছাকাছি আনুন। হাঁটু মুড়ে পায়ের পাতা মাটিতে রাখুন। হাত দিয়ে হাঁটু স্পর্শ করুন। পুনরায় শুয়ে শরীর শিথিল করতে হবে। এতে মেরুদণ্ডের পেশিগুলির কর্মক্ষমতা বজায় থাকবে। রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়। কোমরে মেদ জমবে না।

হানড্রেড মুভ- লম্বা হয়ে শুয়ে পড়ুন। পা দুটিকে উপরের দিকে তুলে ধরুন। পা মাটি থেকে অনেকটা উঁচুতে তুলে ধরুন। এভাবে ১০ সেকেন্ড থাকার পর পুনরায় স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসুন । এতে শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্ষমতা বাড়ে।

দি রোল ওভার মুভ- মেরুদণ্ডের পেশিকে উত্তেজিত করে তোলার সবচেয়ে ভালো উপায় দি রোল ওভার মুভ। এর জন্য মাদুরের ওপর শুয়ে পরুন। হাত দুটি মাটিতে স্পর্শ করুন। হাত মাটিতে থাকা অবস্থাতেই পা দুটি উপরের দিকে তুলে ধরুন। মাথার ওপর দিয়ে পিছনের দিকে নিয়ে আনুন। ঘাড় ঘোরানো যাবে না। আস্তে আস্তে মেরুদণ্ডকে মাদুরের ওপর নিয়ে আনুন।

ওয়ান লেগ সার্কেল মুভ- শরীরকে বলিষ্ঠ, শক্তিশালী করে তোলার জন্য ওয়ান লেগ সার্কেলের পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। মাটিতে চাদর পেতে তার ওপর শরীরকে এলিয়ে দিন। এক পা উপরের দিকে তুলুন। ক্লক ওয়াইজ ৫ বার, অ্যান্টি ক্লক ওয়াইজ় ৫ বার পা ঘোরাতে থাকুন। এই কসরতে পেশি টানটান হবে। সুগঠিত হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট