চোখের জলে বার্সা ছাড়লেন ইনিয়েস্তা

চোখের জলে বার্সা ছাড়লেন ইনিয়েস্তা

আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও বার্সেলোনা নাম দুটি যেন প্রায় সমার্থক। কারণ গত ১৬টি বছর কাতালান শিবিরের মধ্যমণি ছিলেন তিনি। কিন্তু এবার সেই ঘর ছেড়ে পাড়ি জমাচ্ছেন জাপানে। আর তাই জীবনে শেষবারের মতো প্রিয় বার্সেলোনার জার্সিতে মাঠে নামলেন ইনিয়েস্তা। শেষ ম্যাচেও বিজয়ীর বেশে মাঠ ছাড়লেন এই কিংবদন্তি।

অপরদিকে রবিবার রাতে জ্বলে উঠলেন ইনিয়েস্তার শূন্যস্থান পূরণ করতে আসা ফিলিপ কুতিনহো। তার একমাত্র গোলেই ক্যাম্প ন্যুতে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় তুলে নিল বার্সেলোনা। ইনিয়েস্তার বিদায়ী ম্যাচে আবেগে ভেসে সবাই মেতে উঠলে শিরোপা জয়ের আনন্দে।

ইনিয়েস্তা মাঠে ঢুকতেই গ্যালারিতে তার নামে হর্ষধ্বনি ওঠে। তাকে বার্সা এবং সোসিয়েদাদের পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার দেওয়া হয়। ১৬ বছর আগে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে চাপিয়েছিলেন ইনিয়েস্তা। সেই সম্পর্কের মাঝে কখনও চিড় ধরেনি। যে কারণে তার বিদায় উপলক্ষে রীতিমতো এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বার্সা। ৩৪ বছর বয়সী ইনিয়েস্তা ঘোষণা দিয়েছেন, ভবিষ্যতে কোনো ক্লাবে খেললেও সেটা ইউরোপের কোনো ক্লাব হবে না। কারণ, তিনি প্রিয় বার্সেলোনার বিপক্ষে কখনও খেলতে চান না।

ক্যাম্প ন্যুতে স্প্যানিশ ফুটবলের রীতি অনুযায়ী আগেই শিরোপা নিশ্চিত করা বার্সেলোনাকে ম্যাচের আগে ‘গার্ড অব অনার’ দেয় সোসিয়েদাদ।

প্রথমার্ধের ৬১ শতাংশ সময় নিজেদের পায়ে বল রেখেছে বার্সা। তবে, প্রথমার্ধে কোনো গোল পায়নি কাতালানরা। দেম্বেলে-সুয়ারেজ-রাকিতিচদের আক্রমণ কোনো ফল পায়নি। ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে গোল করেন কুতিনহো। ইনিয়েস্তার বিদায়ে এই জায়গা পূরণে কুতিনহোকে কিনেছিল বার্সা। কুতিনহোকে বসিয়ে বার্সা কোচ আরনেস্টো ভালভারদে শেষ ম্যাচে খেলার সুযোগ দেন মেসিকে। বাকি সময়টা মেসি দুর্দান্ত খেললেও গোল পাননি।

৮১তম মিনিটে ইনিয়েস্তাকে উঠিয়ে নেন ভালভেরদে। মেসিকে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড পরিয়ে দিয়ে শেষবারের মতো মাঠ ছাড়েন ইনিয়েস্তা। শেষবারের মতো বার্সার এই অধিনায়ককে করতালি দিয়ে বিদায় জানায় কাতালান সমর্থকরা। কান্নাভেজা চোখে মাঠ ছাড়েন ইনিয়েস্তা। তার বদলি হিসেবে নামেন পাকো আলকাসার। ক্লাবের ইতিহাসের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডারকে শ্রদ্ধা জানাতে উঠে দাঁড়ায় পুরো ক্যাম্প ন্যু।

চার ম্যাচ হাতে রেখে শিরোপা নিশ্চিত করা বার্সা ২৮ জয় ও ৯ ড্রয়ে সর্বোচ্চ ৯৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করলো। রানার্সআপ অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৭৯। ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় রিয়াল মাদ্রিদ। চার নম্বরে থাকা ভালেন্সিয়ার পয়েন্ট ৭৩। অবনমন হয়েছে দেপোর্তিভো লা করুনা, লাস পালমাস ও মালাগার।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট