জঙ্গিদের ‘নিরাপদ আশ্রয়’ পাকিস্তান, ঘোষণা আমেরিকার

জঙ্গিদের ‘নিরাপদ আশ্রয়’ পাকিস্তান, ঘোষণা আমেরিকার

মার্কিন রিপোর্টে পাকিস্তান এমন এক দেশ বা এলাকা, যেখানে জঙ্গিরা অবাধে লালিত-পালিত হয়। এখানে ঘাঁটি গেড়ে অন্য দেশে হামলাও চালায় জঙ্গিরা। ট্রাম্প প্রশাসনের সদ্য প্রকাশিত সরকারি রিপোর্টে পাকিস্তানের এমন ‘পরিচিতি’ দেখে নিঃসন্দেহে খুশি দিল্লির বিদেশ মন্ত্রক। বিষয়টি নিজেদের কূটনৈতিক সাফল্য হিসেবেই দেখছে তারা। কারণ, ভারত দীর্ঘ দিন ধরেই এই কথা বলে আসছে।

প্রতি বছরেই মার্কিন আইনসভা কংগ্রেসে সন্ত্রাস দমন নিয়ে একটি রিপোর্ট দেয় সে দেশের বিদেশ দফতর। বিভিন্ন দেশ জঙ্গি দমনে কতটা এগিয়েছে বা আমেরিকার সঙ্গে তাদের সহযোগিতা কতটা নিবিড়, তার বিশদ বিবরণ থাকে তাতে। সেই রিপোর্টেই মার্কিন বিদেশ দফতর বলেছে, পাকিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে অন্য দেশে হামলা চালাচ্ছে লস্কর-ই-তইবা, জইশ-ই-মহম্মদ, আফগান তালিবান ও হক্কানি নেটওয়ার্ক। রিপোর্টে বলা হয়েছে, পাক জঙ্গিরা ভারতকে নিশানা করেই চলেছে। পঞ্জাবের পঠানকোটে একটি ভারতীয় সেনাঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে তারা।

মার্কিন বিদেশ দফতরের দাবি, পাক সেনা তেহরিক-ই-তালিবানের মতো সংগঠনের বিরুদ্ধে অভিযান চালালেও লস্কর বা জইশের বিরুদ্ধে কখনওই সক্রিয় হয়নি। এই সব জঙ্গি সংগঠন পাকিস্তান থেকেই অর্থ সংগ্রহ করে, পাকিস্তানের মাটিতেই শিবির গড়ে প্রশিক্ষণ চালাচ্ছে।

আফগানিস্তান নিয়েও পাক ভূমিকায় অসন্তুষ্ট আমেরিকা। রিপোর্টে বলা হয়েছে, আফগান সরকার ও আফগান তালিবানের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়াকে সমর্থন করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু তালিবানকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি তারা। পাকিস্তান থেকেই ওই জঙ্গি সংগঠন আফগানিস্তানে মার্কিন ও আফগান বাহিনীর উপরে হামলা চালাচ্ছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট