জনগণের জন্য কাজ করতে এসেছি- প্রধানমন্ত্রী

জনগণের জন্য কাজ করতে এসেছি- প্রধানমন্ত্রী

ক্ষমতায় থেকে বিএনপি-জামায়াত লুটপাট আর সন্ত্রাসবাদ কায়েম করেছে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না বলেই দলটি ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নতি হয় না।

বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা স্কুল মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন তিনি। আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ক্ষমতাকে দেশসেবার সুযোগ হিসেবে দেখে বলেই তার সরকারের আমলে উন্নতি হয়েছে। উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে আবারও নৌকায় ভোট চান শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের জন্য কাজ করতে এসেছি। জনগণকে দিতে এসেছি। দেশকে উন্নয়ন করা, দেশের ভাগ্য উন্নয়ন করা এটাই আমাদের কাজ। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে উন্নয়ন হয় বিএনপি আসলে উন্নয়ন হয় না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ মানেই উন্নয়ন। আর বিএনপি মানেই ধ্বংস, হত্যা, লুটপাট, দুর্নীতি। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সুফল ভোগ করছে জনগণ। এই উন্নয়ন বজায় রাখতে আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে ভোট দেবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসলেই দারিদ্র থেকে মুক্তি। আমরা দারিদ্র থেকে দেশকে দারিদ্রমুক্ত করব। আমরা চাই দেশ এগিয়ে যাক। বিশ্ব সভায় দেশ মর্যাদা নিয়ে এগিয়ে চলুক। আমরা দেশের উন্নয়ন চাই। বিএনপি আসা মানেই দেশকে ধ্বংস করা। আওয়ামী লীগ মানেই শান্তি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারে ধারাবাহিকতা আছে বলেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। উন্নয়নের জন্যই আওয়ামী লীগে ভোট চাই। আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই। ১৮ সালের নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চাই। হাত তুলে ওয়াদা করেন নৌকায় ভোট দেবেন। নৌকা মার্কায় ভোট দেন আপনাদের সোনার বাংলা উপহার দেব।

বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সারা দিন কথা বলেন। দিন-রাত মিথ্যা কথা বলতে বলতে তাঁর গলা ব্যথা হয়ে যায়। কিন্তু মিথ্যা বলারও একটা সীমা আছে। এত মিথ্যা বললে আল্লাহও নারাজ হয়।’

জনসভাস্থলে এসেই তিনি ৩৩টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও আরও ৩৩টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। পরে তিনি মোনাজাতে অংশ নেন। সবশেষ শেখ হাসিনা ২০০১ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর ঠাকুরগাঁও সফর করেন।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
নিজস্ব প্রতিবেদক