জাকির নায়েককে ভারতে না পাঠানোর আনুষ্ঠানিক বার্তা দিচ্ছে মালয়েশিয়া

জাকির নায়েককে ভারতে না পাঠানোর আনুষ্ঠানিক বার্তা দিচ্ছে মালয়েশিয়া

বিতর্কিত ইসলমি বক্তা জাকির নায়েককে ভারতে না পাঠানোর ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক বার্তা দিচ্ছে মালয়েশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সাইফুদ্দিন আব্দুল্লাহ বলেন, তারা ভারত সরকারকে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করে একটি চিঠি পাঠাতে যাচ্ছে।

ভারতের আদালতে অর্থপাচার ও ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর মধ্য দিয়ে জিহাদি কার্যক্রম উদ্বুদ্ধ করার অভিযোগ রয়েছে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে। গত তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন তিনি। ২০১৮ সালে দিল্লির পক্ষ থেকে তাকে ফেরত পাঠানোর আনুষ্ঠানিক আবেদন করা হলে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ এ ব্যাপারে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ায় সংখ্যালঘুদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের অভিযোগে তদন্ত করেছে সেখানকার কর্তৃপক্ষ। তখন মাহাথির বলেছিলেন, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির কয়েকটি রাজ্যে তার বক্তব্য দেওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এই পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে জাকির নায়েককে দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও তৎপর হয়েছে দিল্লি। এরইমধ্যে তার বিরুদ্ধে পরোয়ানাও জারি হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ভারতের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে অনুরোধ করা হয়েছিলো যেন জাকির নায়েককে ফেরত পাঠানো হয়। আমরা ইতোমধ্যে ব্যাখ্যা করেছি কেনও তাকে পাঠানো হবে না। এবার আনুষ্ঠানিক বার্তা দেওয়া হচ্ছে।

সাইফুদ্দিন আব্দুল্লাহ আরো বলেন,‘ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শংকরের সঙ্গে বৈঠকের সময় তিনি বিনয়ের সঙ্গে এই ব্যাপারটি তুলে ধরেছেন। তিনি আমাদের এই বিষয়ে একটি চিঠিও পাঠাতে বলেছেন। আমরা সেই চিঠিই পাঠাচ্ছি।’

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট