জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন যারা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন যারা

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৫’ প্রদান। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সোমবার(২৪ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টায় ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার- ২০১৫’ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সরকারী প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে আগেই জানানো হয়েছে পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্পী-কলাকুশলীদের নাম। এবার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভাপতিত্ব করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

চলচ্চিত্রশিল্পে অবদানের জন্য ২৪টি ক্ষেত্রে শিল্পী-কলাকুশলীকে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৫’ প্রদান করা হয়। এর মধ্যে আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবানা ও সংগীতশিল্পী ফেরদৌসী রহমান।

শাবানা নিজেই পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। ফেরদৌসী রহমানের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার পুত্রবধূ সৈয়দা সাদিয়া আমির। পুরস্কার প্রদানের পাশাপাশি চলচ্চিত্র তারকাদের পরিবেশনায় জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

একনজরে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫

আজীবন সম্মাননা : অভিনেত্রী শাবানা ও সংগীতশিল্পী ফেরদৌসী রহমান।

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র : যৌথভাবে বাপজানের বায়োস্কোপ (পরিচালক-রিয়াজুল মওলা রিজু) ও অনিল বাগচীর একদিন (পরিচালক-মোরশেদুল ইসলাম)।

শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র : একাত্তরের গণহত্যা ও বধ্যভূমি (চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর)।

শ্রেষ্ঠ পরিচালক (যৌথ) : যৌথভাবে মোরশেদুল ইসলাম (অনিল বাগচীর একদিন) ও রিয়াজুল মওলা রিজু (বাপজানের বায়োস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা প্রধান চরিত্র (যৌথ) : শাকিব খান (চলচ্চিত্র-আরো ভালোবাসবো তোমায়) ও মাহফুজ আহমেদ (জিরো ডিগ্রি)।

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী : জয়া আহসান (চলচ্চিত্র-জিরো ডিগ্রি)।

পার্শ্ব-চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা : গাজী রাকায়েত (চলচ্চিত্র-অনিল বাগচীর একদিন)।

পার্শ্ব-চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী : তমা মির্জা (চলচ্চিত্র : নদীজন)।

খল চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা : ইরেশ যাকের (চলচ্চিত্র : ছুঁয়ে দিলে মন)।

শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী : যারা যারিব (প্রার্থনা)

শিশু শিল্পী শাখায় বিশেষ পুরস্কার : প্রমিয়া রহমান (চলচ্চিত্র-প্রার্থনা)।

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক : সানী জুবায়ের (চলচ্চিত্র : অনিল বাগচীর একদিন)।

শ্রেষ্ঠ গীতিকার : আমিরুল ইসলাম (উথাল পাতাল জোয়ার, চলচ্চিত্র : বাপজানের বায়োস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ সুরকার : এসআই টুটুল (উথাল পাতাল জোয়ার, চলচ্চিত্র-বাপজানের বায়েস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ সংগীতশিল্পী : প্রিয়াংকা গোপ (আমার সুখ সে তো, চলচ্চিত্র: অনিল বাগচীর একদিন)

শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার : মাসুম রেজা(বাপজানের বায়েস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার : যৌথভাবে মাসুম রেজা (বাপজানের বায়োস্কোপ) ও রিয়াজুল মওলা রিজু (বাপজানের বায়োস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচিয়তা : হুমায়ূন আহমেদ (অনিল বাগচীর একদিন)।

শ্রেষ্ঠ সম্পাদক : মেহেদী রনি (বাপজানের বায়োস্কোপ)।

শ্রেষ্ঠ শিল্প-নির্দেশক : সামুরাই মারুফ (জিরো ডিগ্রি)।

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক : মাহফুজুর রহমান খান (পদ্ম পাতার জল)।

শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক : রতন কুমার পাল (জিরো ডিগ্রি)।

শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জা : মুসকান সুমাইকা (পদ্ম পাতার জল)।

শ্রেষ্ঠ মেকআপ : ম্যান শফিক (জালালের গল্প)।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট