জীবনটাকে শতভাগ উপভোগ করার কিছু মূলমন্ত্র

জীবনটাকে শতভাগ উপভোগ করার কিছু মূলমন্ত্র

মানুষের জীবন খুবই ছোট। জীবনকে সাজাতে আমরা কত কিছুই না করি। জীবনকে সুন্দর করে তুলতে ছোট বেলা থেকেই আমরা বিভিন্ন ধরণের কাজ করে থাকি। অনেকে আছেন যারা নিজের জীবন নিয়ে বিষণ্ণতায় ভোগেন। তারা আসলে জীবনকে উপভোগ করার উপায় জানেন না। কিন্তু ছোট্ট জীবনটাকে তো অবশ্যই উপভোগ করতে হবে। আর এ কাজটি খুব কঠিন নয়। জীবন উপভোগ করার কয়েকটি মূলমন্ত্র মনে রাখলেই বিষণ্ণতা কাটিয়ে জীবনকে সুন্দর করে গয়ে তোলা যাবে।

খারাপ বন্ধু থেকে দূরে থাকুন জীবনটাকে উপভোগ করতে হলে খারাপ বন্ধুদের থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন। খারাপ বন্ধুরা খুব সহজেই জীবনের মজাটাকে মাটি করে দিতে পারেন। কিছু বন্ধু একেবারেই নেতিবাচক ধরণের হয়। এ ধরণের নেতিবাচক বন্ধুদের থেকে দূরত্ব বজায় না রাখলে আপনারও জীবন সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা জন্মে যাবে। তাই এ ধরণের বন্ধুদের সাথে মেলামেশা না করাই ভালো।

নিজের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিন সবসময় নিজের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিন। না হলে মন থেকে কখনোই সন্তুষ্ট হতে পারবেন না। আপনার মন যদি কোনো ব্যাপারে সায় দেয় এবং তা যদি কোনো অন্যায় কাজ না হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই মনের কথা শুনুন। প্রয়োজনে গতানুগতিক নিয়ম ভেঙে ফেলুন।

নিজের জন্য সময় রাখুন নিজের জন্য কিছুটা সময় রাখুন। জীবনের হাজারো ব্যস্ততার মাঝেও একটুখানি সময় নিজেকে দেওয়ার চেষ্টা করুন। এ সময়টা নিজেকে না দিলে সারাজীবন আফসোস থেকে যাবে। নিজের জন্য বিশেষ এ সময়টিতে শুধু নিজের পছন্দের কাজ করুন। নিজেকে নিজেই উপভোগ করুন এ সময়ে।

নতুন নতুন বিষয় শিখুন শেখার মধ্যে আছে আনন্দ। নতুন কিছু শিখলে জীবনের একঘেয়েমি অনেকটাই দূর হয়ে যায়। তাই প্রতিনিয়তই নতুন নতুন বিষয় শেখার চেষ্টা করুন। নিজেকে ব্যস্ত রাখুন নানান কোর্সে। নিজের শখের বিষয়গুলোতেও আরেকটু এক্সপার্ট হয়ে নিন কিছু কোর্সের মাধ্যমে। এতে জীবনটাকে অনেকটাই উপভোগ্য মনে হবে।

ছোটখাটো বিষয় লক্ষ্য করুন জীবনে চলার পথে ছোটখাটো বিষয়গুলোকে লক্ষ্য করুন। একটু লক্ষ্য করলেই আনন্দ খুঁজে পাবেন ছোটখাটো নানান বিষয় থেকে। পথের ধারের চায়ের দোকানের আড্ডা থেকে ঘরের বেডরুমে ভুল করে ঢুকে যাওয়া একটি প্রজাপতি, সব কিছু দেখেই জীবনটাকে অনেক সুন্দর মনে হবে।

মাঝে মাঝে অ্যাডভেঞ্চার করুন জীবনটাকে উপভোগ করতে হলে মাঝে মাঝে একটু ঝুঁকি নেওয়ার প্রয়োজন আছে। সবসময়েই নিয়মের বেড়াজালে নিজেকে জড়িয়ে না রেখে মাঝে মাঝে একটু অ্যাডেভেঞ্চার করুন। হুট করেই ঘুরে আসুন অ্যাডভেঞ্চারাস কোনো স্থান থেকে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট