টেলিফিল্ম সবার একটা গল্প থাকে

টেলিফিল্ম সবার একটা গল্প থাকে

তিশা, মায়া ও নাইম তিন বন্ধু। হঠাৎ করেই তারা প্ল্যান করে নেপালে যাবে। মায়া ও নাইমের কোন ঝামেলা না থাকলেও তিশা পারিবাররিক বাধার সম্মুখীন হয়। তিশার পরিবার বেশ রক্ষণশীল। বন্ধু-বান্ধবের সাথে ঢাকার বাইরে যেতে দিতেই তারা নারাজ। সেখানে দেশের বাইরে যেতে দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

এদিকে তিশার বিয়েও ঠিক হয়েছে। তাই তিশা ও মায়া মিলে তিশার বাবাকে কনভিন্স করে যাওয়ার জন্যে। কারণ বিয়ের পরে তো আর বন্ধুদের সাথে এভাবে কোথাও যাওয়া  হবে না। তিশার বাবা তাই যাওয়ার অনুমতি দেন।

তিশা ও মায়ার সাথে বাজি ধরে নাইম বিদেশী এক তরুনীর সাথে খাতির জমিয়ে ফেলে। তা দেখে মায়া মজা পেলেও তিশা রেগে যায়। নাইম কেন বিদেশী মেয়েদের সাথে ফ্ল্যার্ট করে? নাইমের অকপট জবাব, সে বিদেশী মেয়ে বিয়ে করে বিদেশে চলে যাবে। ধনী হবে। কিন্তু তিশা মনে করে, ধনী হয়ে কি হবে? নিজের উপার্জনে ধনী হলে সুখ পাওয়া যায়। অন্যের ধনে পোদ্দারী করে সুখ আসে না।

এদিকে তিশাকে সারপ্রাইজ দিতে নেপালে চলে যায় তার হবু বর জনি। তাকে দেখে তিশা অবাক হয়। একইসাথে রেগেও যায়। কারণ সে জনিকে সেখানে একদমই আশা করেনি। তাই একটু বাজে আচরণও করে। এরপর জনি অপমানবোধ করে ফিরে আসে।

এমনই গল্পে নির্মিত হয়েছে টেলিফিল্ম ‘সবার একটা গ্লপ থাকে’। এটি রচনা করেছেন শফিকুর রহমান শান্তনু। নাটকটি পরিচালনা করেছেন দীপু হাজরা।

এই টেলিফিল্মের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল, অপর্ণা, কল্যাণ কোরাইয়া, মাহা ও একটি বিশেষ চরিত্রে অর্ষা। আজ শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় মাছরাঙা টিভিতে প্রচার হবে এই টেলিফিল্ম।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট