ট্রাম্পের চাপে তেলের উৎপাদন বাড়াল সৌদি; দাম পাবে কম

ট্রাম্পের চাপে তেলের উৎপাদন বাড়াল সৌদি; দাম পাবে কম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চাপের মুখে নতি স্বীকার করে তেলের উৎপাদন বাড়িয়েছে সৌদি আরব। গত তিন বছরের মধ্য আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম যখন সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে তখন সৌদি আরব তেল উৎপাদন বাড়াল। তেলের দাম কমিয়ে আনার জন্য ট্রাম্পের চাপের মুখে সৌদি আরব বাজারে বাড়তি তেল সরবরাহ করতে বাধ্য হচ্ছে।

পরিসংখ্যান থেকে দেখা যাচ্ছে- চলতি বছরের জুন মাসে সৌদি আরব প্রতিদিন বাড়তি পাঁচ লাখ ব্যারেল তেল উত্তোলন করেছে। ফলে জুন মাসে দেশটির প্রতিদিনের তেল উৎপাদন দাঁড়ায় এক কোটি পাঁচ লাখ ব্যারেলে। মে মাসে দৈনিক উৎপাদন ছিল এক কোটি ব্যারেল। সে ক্ষেত্রে মে মাসের তুলনায় সৌদি আরব জুন মাস তেলের উৎপাদন উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়িয়েছে।

২০১৪ সালের পর এই প্রথম প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ৮০ ডলারের কাছাকাছি পৌঁছেছে যা গাড়ি নির্ভর মার্কিন জনগণের জন্য উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

জুন মাসের শেষ দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, তার সঙ্গে বৈঠকে সৌদি রাজা প্রতিদিন দুই কোটি ব্যারেল তেল উত্তোলনে রাজি হয়েছেন। তবে নতুন পরিসংখ্যান থেকে দেখা যাচ্ছে- সৌদি আরব জুন মাস থেকেই তেলের উত্তোলন বড়িয়েছে।

ট্রাম্প মনে করেন, সৌদি আরবের এই বাড়তি তেল উত্তোলনের ফলে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ও ভেনিজুয়েলার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা সম্ভব হবে। তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংস্থা ওপেকেরে হিসাব মতে- ২০১৯ সালে বিশ্বে তেলের চাহিদা প্রতিদিন ১০ কোটি ব্যারেল ছড়িয়ে যাবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট