ট্রেনে সিডিউল বিপর্যয়, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

ট্রেনে সিডিউল বিপর্যয়, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

ঈদুল ফিতরের বাকি মাত্র একদিন। স্বজনদের সঙ্গে ঈদ কাটাতে অনেকে কয়েকঘণ্টা আগেই কমলাপুরে এসেছেন। তবে ঈদে বাড়ি ফিরতে ট্রেন ভ্রমণ নিরাপদ হলেও সিডিউল বিপর্যয়ের কারণে ভোগান্তিতে যাত্রীরা। আজ ঢাকা-খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটে কমলাপুর থেকে ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের একঘণ্টা পর ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

অন্যদিকে, নীলসাগর এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে চিলাহাটির উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল সকাল ৮টায়। কিন্তু ট্রেনটি ঠিক সময়ে কমলাপুর প্লাটফর্মে এসে পৌঁছায়নি। কাজেই সকাল ১০টার আগে ট্রেনটি ছাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন কর্মকর্তা জানান, তবে ট্রেনের টেকনিক্যাল ও অবকাঠামোগত কোনো সমস্যা নেই। মূলত অতিরিক্ত যাত্রীর চাপেই ট্রেন ছাড়তে বিলম্ব হচ্ছে। ঈদযাত্রায় সবাইকে সুযোগ করে দিতেই ইচ্ছাকৃতভাবে ট্রেন দেরিতে ছেড়ে যাচ্ছে।

খুলনার যাত্রী কামরুল ইসলাম ট্রেন ছেড়ে যাওয়ার পূর্বে বলেন, সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটে কমলাপুর থেকে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিলম্ব হচ্ছে।

নীলসাগর এক্সপ্রেসের যাত্রী মনোয়ারা বেগম বলেন, ‘ভোর থেকে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছি। কোনা ঝামেলা ছাড়া সবাই ট্রেনে উঠবো সে জন্য একটু আগে এসেছি। কিন্তু ট্রেন এখনও কমলাপুরেই আসেনি।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট