ডোপ কেলেঙ্কারিতে চার ‍মাস নিষিদ্ধ শেহজাদ

ডোপ কেলেঙ্কারিতে চার ‍মাস নিষিদ্ধ শেহজাদ

ডোপ টেস্টে পজিটিভ আহমেদ শেহজাদ সব ধরণের ক্রিকেট থেকে চার মাস নিষিদ্ধ হয়েছেন। এ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে গত ১০ জুলাই থেকে। অর্থাৎ, নিষেধাজ্ঞার প্রায় তিন মাস সময় ইতোমধ্যে অতিবাহিত করে ফেলেছেন তিনি।

পিসিবির অ্যান্টি ডোপিং নিয়ম ভঙ্গ করায় শেহজাদকে চার মাস নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এরআগে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ায় অনেকেই ধারণা করেছিলেন বড় শাস্তির পাচ্ছেন শেহজাদ। কিন্তু পিসিবির বদ্যনতায় তেমনটা হয়নি।

গত ২০ মে একজন তারকা ক্রিকেটারের ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার খবর দিয়ে রীতিমত হইচই ফেলে দিয়েছিল, ‘একজন ক্রিকেটারের নিষিদ্ধ দ্রব্য গ্রহণের ফলাফল পজেটিভ এসেছে।’ শেষ পর্যন্ত গত ১০ জুলাই জানা যায় সেই ক্রিকেটারটি শেহজাদ। তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে ১০ নভেম্বর।

পিসিবির নতুন চেয়ারম্যান এহসান মনি বলেন, ‘ক্রিকেটে ডোপিংয়ের ব্যাপারে পিসিবি জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করবে। আশা করি ভবিষ্যতে ক্রিকেটাররা সচেতন থাকবেন।’

চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল থেকে ১ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে পাকিস্তানের ঘরোয়া টুর্নামেন্ট পাকিস্তান কাপ। ঐ টুর্নামেন্টে দারুণ ফর্মে ছিলেন শেহজাদ। ৭৪.৪০ এর মতো আকাশচুম্বী ব্যাটিং গড় নিয়ে করেছেন ৩৭২ রান। হয়েছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। হাঁকিয়েছেন তিনটি হাফসেঞ্চুরি ও একটি সেঞ্চুরি। পাকিস্তান কাপের সময় ডোপ টেস্ট করা হয় শেহজাদের। এরপর তিনি ফেঁসে যান। যে কারণে এতদিন এ ডানহাতি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসহ আইসিসির স্বীকৃত কোনো আসরেখেলতে পারেননি। এবার তো আনুষ্ঠানিকভাবে শাস্তি পেয়ে গেলেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট