তামাকজনিত কারণে ৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ নারীর মৃত্য

তামাকজনিত কারণে ৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ নারীর মৃত্য

‘দ্য টোবাকো অ্যাটলাস’-এর মতে, বাংলাদেশে প্রতিবছর তামাকজনিত ব্যয় হয় ১৬ কোটি টাকা এবং তামাকজনিত কারণে ২৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও ৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ নারীর মৃত্যু হয়।

এ ছাড়া ফুসফুস ক্যান্সার, স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাকসহ তামাকজনিত বিভিন্ন মারাত্বক রোগে প্রতিবছর আনুমানিক ১ লক্ষ ৬১ হাজার দুই শ জন মানুষের মৃত্যু ঘটে।

বুধবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য তুলে ধরেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, দেশে প্রতিদিন ১ লক্ষ ৭২ হাজার শিশু এবং ২ কোটি ৫০ লক্ষ মানুষ তামাক ব্যবহার করে। এ পরিস্থিতিতে তামাকের সকল ধরনের ব্যবহার কমাতে সমন্বিত তামাক নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা বাস্তবায়নের মাধ্যমেই কেবল মৃত্যুর এই হার কমানো সম্ভব, নতুবা প্রতি বছর এই সংখ্যা বাড়তেই থাকবে। তামাকের ব্যবহার কমাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, তামাক নিয়ন্ত্রণে সরকার বহুমাত্রিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, তামাকজাত পণ্যে আরোপিত স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ ও তামাক নিয়ন্ত্রণে ব্যবহারের লক্ষ্যে ব্যবস্থাপণা নীতি অনুমোদন।

এ সময় তিনি পরোক্ষ ধূমপানের মারাত্মক ক্ষতি বিষয়ে টিভি স্পট ‘বিষধোঁয়া’-এর প্রচারাভিযানের উদ্বোধন করেন। বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক সংস্থা ভাইটাল স্ট্র‍্যাটেজিজ-এর যৌথ অর্থায়নে নির্মিত ৩০ সেকেন্ডের এই টিভি স্পটটি আগামী ৬ সপ্তাহ বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ দেশের প্রধান সবকটি চ্যানেলে প্রায় ৫ হাজার বার প্রচার করা হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘বিষধোঁয়া’ বাংলাদেশের মানুষের মধ্য তামাক ব্যবহার বিষয়ক ইতিবাচক আচরণ পরিবর্তনের ভূমিকা রাখবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট