দুবাইয়ে টি-টুয়েন্টি লিগ খেলার অনুমতি পাচ্ছেন সাকিব!

দুবাইয়ে টি-টুয়েন্টি লিগ খেলার অনুমতি পাচ্ছেন সাকিব!

নিজেদের ‘সিদ্ধান্ত’ থেকে সরে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)! সংযুক্ত আরব আমিরাতে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলার অনুমতি পাচ্ছেন সাকিব আল হাসান।

বোর্ডের বিশ্বস্ত সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে শিগগিরই।

আঙুলের চিকিৎসা শেষে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরে সাকিব জানিয়েছিলেন, সুস্থ হলে মাঠে ফিরবেন। সুস্থ হতে তিন মাসও লাগতে পারে আবার এক মাসেরও প্রয়োজন হতে পারে। বর্তমানে তার পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলছে। জানা গেছে, আঙুলে এখন কোনো ব্যথা অনুভব করছেন না। ধীরে ধীরে ফিরে পাচ্ছেন শক্তি। তাইতো মাঠে ফিরতে মুখিয়ে আছেন।

আগামী ১৯ ডিসেম্বর থেকে ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলবে টি-টোয়েন্টি এক্স নামের এই টুর্নামেন্ট। ৫ জানুয়ারি শুরু হবে বিপিএল। বিপিএলের আগেই দেশে ফিরবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সে অনুযায়ী বিসিবির কাছে অনাপত্তিপত্র চেয়েছিলেন সাকিব। পাশাপাশি এও বলেছিলেন, সুস্থ হলেই টুর্নামেন্টে খেলতে যাবেন তিনি। যদি দেখেন টুর্নামেন্টের আগে আঙুলে ব্যথা কিংবা অন্য কোনো সমস্যা হচ্ছে, তাহলে আমিরাতের টুর্নামেন্টও বাদ দেবেন।

মূলত প্লেয়ার্স ড্রাফটে নাম দিতে অনাপত্তিপত্রের আবেদন করেছিলেন সাকিব। সেই আবেদনে এবার বিসিবি থেকে সাড়াও পাচ্ছেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক।

সাকিবের অনাপত্তিপত্র নিয়ে শুরুতে নেতিবাচক চিন্তা থাকলেও সেখান থেকে সরে এসেছে বিসিবি! এর নির্দিষ্ট কারণও রয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের শেষটা হবে টি-টোয়েন্টি দিয়ে। ফিজিওর অনুমতি এবং ম্যাচ ফিটনেস পেলে সাকিবকে দেখা যেতে পারে হোম সিরিজেও। তাইতো বোর্ড তাকে অনুমতি দেওয়ার পক্ষে।

সাকিবকে অনাপত্তিপত্র দেওয়া হচ্ছে কিনা তা নিয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান। বোর্ড সাকিবের মেডিকেল রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে। সেটা ইতিবাচক হলে সাকিব অনুমতি পেয়ে যাবে।

‘মেডিকেল প্রতিবেদন ইতিবাচক হলে সাকিবকে আমরা এনওসি দিয়ে দিচ্ছি। এক বছরের মধ্যে সাকিব অস্ত্রোপচার করতে পারবে না। আপাতত ব্যথাও নেই। মেডিক্যালি যদি সে ফিট থাকে, তাহলে খেলতে পারবে।’- বলেছেন আকরাম খান।

বিগ বাজেটের টি-টোয়েন্টি এক্স টুর্নামেন্টের জন্য এরই মধ্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ডেভিড মিলার, এবি ডি ভিলিয়ার্স, শহীদ আফ্রিদি ও আন্দ্রে রাসেলের মতো তারকারা। আইকন হিসেবে তারা চারজনই খেলবেন টুর্নামেন্টে। এ ছাড়া ৪০০ বিদেশি ক্রিকেটার টুর্নামেন্টে খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট