দেশে ফিরে বাংলাদেশ সফর নিয়ে যা বললেন হাথুরুসিংহে

দেশে ফিরে বাংলাদেশ সফর নিয়ে যা বললেন হাথুরুসিংহে

জাতীয় দলের প্রধান কোচ হিসেবে প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট দুর্দান্তভাবে সফল। এই সাফল্যে ক্রিকেট বোর্ড সহ সমর্থকদের মধ্যে আনন্দের শেষ নেই। সেটাও আবার এমন একটা দলের বিপক্ষে, দুই মাস আগেও যাদের কোচ ছিলেন হাথুরুসিংহে। দেশটির নাম বাংলাদেশ। হাথুরু আমলে ঘরের মাঠের বাঘের খ্যাতি পেয়েছিল দলটি। সেই দলের বিপক্ষে পরপর তিন তিনটি সিরিজ জিতে দেশে ফেরার পর আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন হাথুরু। কথা বলেন বাংলাদেশ সফর নিয়ে।

ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরুতে দুর্দান্ত ছিল বাংলাদেশ। প্রথম দুই ম্যাচে জিম্বাবুয়ে আর শ্রীলঙ্কাকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছিল মাশরাফি বাহিনী। এরপরেই নিজের প্ল্যান-বি কার্যকর করেন অসম্ভব ক্রিকেট জ্ঞান সম্পন্ন কোচ হাথুরুসিংহে। ম্যাজিকের মত বদলে যায় হারতে হারতে খাদের কিনারায় চলে যাওয়া লঙ্কান দলের অবস্থা। এরপর তিন ফরম্যাটে কোনো ম্যাচ হারেনি তারা। শুরুর দিকে খেই হারালেও শ্রীলঙ্কা ফর্মে ফিরবে, এই বিশ্বাস ছিল হাথুরুসিংহের।

তিনি বলেন, ‘আমরা জানতাম আমরা ফিরে আসতে পারবো। প্রতিপক্ষ প্রথম দুই ম্যাচে দারুণ খেলেছে, আর আমরাও কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সময় নিয়েছি। কিছু সিদ্ধান্ত ভুলও ছিল আমাদের। তারপরে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি।’

এই সফরের আগে বাজে সময় যাচ্ছি। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটে। শুরু হয়েছিল রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ। কিন্তু হাথুরুর ছোঁয়াতেই যেন বদলে গেল লঙ্কানরা। নিজেদের সামর্থ্যের জানান দিয়ে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘বড় দলের সাথে আমরা প্রতিযোগিতা দেওয়ার সামর্থ্য রাখি। তবে ফলাফলের নিশ্চয়তা আমরা কেউই দিতে পারি না। আমরা যেটা করতে পারি তা হলো, সবসময় নিজেদের স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলা বা সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করা। এখন পর্যন্ত যা দেখছি, তাতে আমি সন্তুষ্ট। এভাবে খেলতে থাকলে অবশ্যই আমরা ভালো করব।’

লঙ্কান ক্রিকেট দলের দায়িত্ব নেওয়ার আগেই হাথুরু শর্ত দিয়েছিলেন, তার কাজে কোনোরকম খবরদারি করা যাবে না। তিনি নিজের ইচ্ছামত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবেন। প্রসঙ্গটি নিয়ে হাথুরু বলেন, ‘বিভিন্ন দেশ এবং বিভিন্ন প্রতিপক্ষের সাথে লড়াই করার জন্য আমরা পাইপলানে অনেক ক্রিকেটার চাই। তাদের সামর্থ্য এবং সীমা অনুযায়ী সুযোগ দেওয়া হবে। আমার কাজের ক্ষেত্রে মনে হয় না আপনারা একই দল বারবার দেখতে পারবেন। অবশ্যই যারা পারফর্ম করবে তারাই দলে সুযোগ পাবে, তবে ম্যাচ জেতার জন্য সেরা কম্বিনেশন বাছাইয়ের চেষ্টা থাকবে সবসময়।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট