ধূমপান ছাড়তে কয়েকটি খাবার

ধূমপান ছাড়তে কয়েকটি খাবার

‘ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর’- সিগারেটের প্রতি প্যাকেটেই এ কথা লেখা থাকে। তবুও অনেকে ধূমপান করেন। তাদের মত- সিগারেট এমন এক নেশা যা ছাড়া যায় না।

কয়েকটি খাবার আপনাকে ধূমপান ছাড়তে সাহায্য করে :

১. দুধ খাওয়ার পর সিগারেট খেলে প্রচণ্ড তেতো লাগে। নেশা ছাড়তে চাইলেও যদি সিগারেট খেতে ইচ্ছা হয় তাহলে অল্প দুধ খান। সিগারেটের তিতকুটে স্বাদই আপনাকে ছাড়তে সাহায্য করবে।

২. সিগারেট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলে প্রতি দিন খান একমুঠো বাদাম। এর থেকে পাওয়া এনার্জি, প্রোটিন ও প্রচুর স্বাস্থ্যকর খনিজ ধীরে ধীরে আপনাকে নেশা ছাড়তে সাহায্য করবে।

৩. কমলা লেবু, লেবু, বেদানার মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি। সাধারণত যাদের ধূমপানের অভ্যাস থাকে তাদের ফল খাওয়ার অভ্যাস থাকে না। লেবু জাতীয় ফল খাওয়ার অভ্যাস তৈরি করলে সিগারেট খাওয়া ছাড়তে পারবেন।

৪. নোনতা স্ন্যাকস দুধের মতোই নোনতা খাবারের পর সিগারেট খেলেও মুখ বিস্বাদ হয়ে যায়। তাই অবশ্যই সঙ্গে রাখুন নোনতা স্ন্যাকস। অফিসে বা কাজের মাঝে সিগারেট খেতে ইচ্ছা হলে নোনতা স্ন্যাকস খান।

৫. স্মুদি সিগারেট ছাড়ার পর ডিটক্স করতে ফল খাওয়ার প্রয়োজন হয়। স্মুদি এই সময় পুষ্টি যেমন জোগাবে, তেমনই এর স্বাদ ও ভারী ভাব ধূমপানের ইচ্ছাও কমিয়ে দেবে।

৬. সুগার ফ্রি গাম ও মিন্ট সিগারেটের নেশা ছাড়ার জন্য মুখে কিছু রাখতে পারেন। মিষ্টি জাতীয় খাবার নেশা ছাড়ানোর পথে বাধা হতে পারে। সুগার ফ্রি গাম বা মিন্ট রাখুন মুখে। এতে মুখের স্বাদ নষ্ট হয়ে যাবে। সিগারেট খেতে ইচ্ছা হবে না।

৭. কাঁচা সবজি ফলের মতোই নেশা কাটাতে দারুণ কাজ করে কাঁচা সবজি। বিনস, গাজর জাতীয় সব্জি সরু সরু করে কেটে অফিসের লাঞ্চে নিয়ে যেতে পারেন। সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছা হলে এই সবজি খান। নেশা কাটবে।

৮. দই বা ইয়োগার্ট দুধ খেলে সিগারেট তেতো লাগে- এই কথা প্রযোজ্য দুগ্ধজাত খাবারেরে ক্ষেত্রেও। দই বা ইয়োগার্ট নিয়মিত খান। স্বাস্থ্যের জন্যও ভাল, নেশা কাটাতেও সাহায্য করবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট