নাইজেরিয়া ম্যাচের আগেই বরখাস্ত হচ্ছেন সাম্পাওলি?

নাইজেরিয়া ম্যাচের আগেই বরখাস্ত হচ্ছেন সাম্পাওলি?

২০১০ বিশ্বকাপের ফ্রান্স দলের কথা মনে আছে? কোচ রেমন্ড ডমিনিখকে ঘিরে দলের মধ্যে কোন্দলের প্রভাবে পড়েছিল দলটির বিশ্বকাপ পারফরম্যান্সের উপর। তিন ম্যাচ থেকে মাত্র এক পয়েন্ট নিয়ে বাড়ির পথ ধরতে হয়েছিল ’৯৮ এর চ্যাম্পিয়নদের। পুরোনো প্রসঙ্গ তোলার কারণ, এবার অনেকটা একই ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা শিবিরেও। দলের ভেতরের সূত্র অনুযায়ী, বেশিরভাগ আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়ই আর সাম্পাওলিকে কোচ হিসেবে চাইছেন না। শোনা যাচ্ছে, নাইজেরিয়া ম্যাচের আগেই নাকি চাকরি হারাতে পারেন সাম্পাওলি!

ঘটনার সূত্রপাত ম্যাচ শেষে সাম্পাওলির এক মন্তব্য থেকে। দলের খেলোয়াড়ের সাম্পাওলির গেমপ্ল্যান বুঝতে পারছেন না, এমন দাবি করেছিলেন কোচ। ম্যাচ শেষে সার্জিও আগুয়েরোর কাছে এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তাঁকে খুব একটা প্রসন্ন মনে হয়নি। বরং উত্তেজিত হয়ে বলেছেন, ‘তিনি যা খুশি বলতে চান বলতে পারেন।’

এরপর থেকেই সাম্পাওলির বরখাস্ত হওয়ার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। সেই গুঞ্জন আরও ডালপালা মেলেছে শেষ কয়েক ঘণ্টায়। আর্জেন্টাইন মিডিয়ার খবর অনুযায়ী, ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারের পর খেলোয়াড়েরা নিজেদের মধ্যে বৈঠকে বসেছিলেন। সেখানেই নাকি তাঁরা সাম্পাওলিকে অনুরোধ করেছেন, নাইজেরিয়া ম্যাচের আগেই যেন সরে দাঁড়ান তিনি! জনপ্রিয় ফুটবল সাংবাদিক স্যাম লি ও তাঁর টুইটে বলেছেন, খেলোয়াড়েরা সাম্পাওলিকে সরে দাঁড়ানোর জন্য অনুরোধ করেছেন।

সাম্পাওলির বদলে মেসিরা বরং ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হোর্হে ভালদানোকে চাইছেন কোচ হিসেবে। তবে সাম্পাওলিকে এখনই কোচের পদ থেকে সরিয়ে দিতে চাইলে অতিরিক্ত ২০ মিলিয়ন ডলার গুণতে হবে আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশনকে। চুক্তি শেষের আগেই বরখাস্ত করা হলে জরিমানা হিসেবে এই অঙ্কের অর্থ গুণতে হবে এএফএ কে।

এদিকে সাম্পাওলির বরখাস্ত ছাড়াও গুঞ্জন ছড়িয়েছে আরেকটি। বিশ্বকাপ শেষেই অবসরে যেতে পারেন এই আর্জেন্টিনা দলের সাত সদস্য! বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, নাইজেরিয়া ম্যাচের পর আর্জেন্টিনার জার্সি তুলে রাখার ঘোষণা দিতে পারেন মার্কোস রোহো, এভার বানেগা, সার্জিও আগুয়েরো, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, গঞ্জালো হিগুয়েইন, হাভিয়ের মাশচেরানো ও স্বয়ং লিওনেল মেসি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট